যে কারণে আ.লীগ থেকে পদত্যাগ করলেন ওবায়দুল কাদেরের ছোটভাই

Kader-Kader-Mirza

নিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোটভাই বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন।

বুধবার (৩১ মার্চ) দুপুর পৌনে ১২টায় নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে এসে এ ঘোষণা দেন তিনি।

তিনি বলেন, আমি সব অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে কথা বলে এখন সবার কাছে খারাপ হয়ে গেছি। যে দলে সম্মান নাই, সেখানে আমি থাকবো না। আমি বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সদস্য হয়েছি, সেখানে থেকেই কাজ করবো।

শেখ হাসিনার উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনি একসঙ্গে না পারলেও আস্তে আস্তে দলের দুর্নীতিবাজদের লাগাম টেনে ধরুন। যারা বেশি অনিয়মকারী, তাদের দল থেকে বের করে দিন।

বড়ভাই ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করে তিনি বলেন, তিনি পদপদবির জন্য অপশক্তিদের কাছে মাথা নত করেছেন। যেদিন আমার ছোট ভাই (দেলোয়ার) ফাঁসি দিয়ে মারা গেছে, সে দিনই তার সঙ্গে (ওবায়দুল কাদের) সম্পর্ক মানসিকভাবে দূরে সরে গেছে।

ওবায়দুল কাদেরের সাবেক এপিএস বর্তমানে সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি এটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট আমিন উদ্দিন মানিকের সমালোচনা করে তিনি বলেছেন, সে চাকরিপ্রার্থী অনেক নারীর সঙ্গে অনিয়ম করেছেন, অবশেষে বিয়েও করেছেন অনিয়ম করে।

উল্লেখ্য কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুল কাদের মির্জা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই। আবদুল কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের দুই নম্বর সদস্য থেকে ২৭ বছরেরও বেশি সময় ধরে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •