কোম্পানির ওষুধ না লেখায় চিকিৎসককে মারধর

নিউজ ডেস্কঃ
নেত্রকোনায় রোগীদের ব্যবস্থাপত্রে কোম্পানির ওষুধ না লেখায় বিক্রয় প্রতিনিধির হাতে মারধরের শিকার হয়েছেন চিকিৎসক মেহেদী হাসান। মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) বেলা ১২টার দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বহির্বিভাগে এ ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে রোগীদের সেবা প্রদান কিছুক্ষণ বন্ধ থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ রিলায়েন্স ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি মাহফুজ মোড়লকে আটক করে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় ওই চিকিৎসক থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে কথা বলতে দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) নাম্বারে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
দুর্গাপুর থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) তানজিরুল ইসলাম রায়হান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রিলায়েন্স নামক কোম্পানির নাম আমরা শুনিনি। ওই কোম্পানির রিপ্রেজেনটেটিভ মাহফুজ তার একটা ছোট খাটো ডায়াগনস্টিক সেন্টারও রয়েছে। তিনি হাসপাতালে এসে জোর জবরদস্তি চালায়। এমনিতেই করোনা সংকটে আছি। চিকিৎসক সংকট। তার ওপর এমন আচরণ আমাদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করেছে। তার কোম্পানির ওষুধ না লিখায় হাসপাতালে এসে চিকিৎসককে মারধর করেছে।
তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। পুলিশ এসে তাকে ধরেও নিয়ে গেছে। আমরা এর সঠিক বিচার চাই। পাশাপাশি চিকিৎসকদের নিরাপত্তাও চাই। তা না হলে রোগীদের সেবা দেয়া আমাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়বে।

  •  
  •  
  •  
  •