কুয়েতে কৃষি খাতে বাংলাদেশিদের সুনাম

quaet

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ অন্যতম ধনী দেশ কুয়েত। আয়তন ১৭ হাজার ৮২০ বর্গকিলোমিটার। সৌদি ও ইরাক বর্ডার ঘেঁষে অফরা, আবদালি ও জাহারা অঞ্চলজুড়ে বিশাল বিস্তৃত মরু অঞ্চল। সবুজ শাক-সবজি ও ফলমূলের ব্যাপক চাহিদা থাকায় বাইরের দেশ থেকে আমদানি করতে হয় তাদের।

অসংখ্য বালাদেশি দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলে কৃষিকাজে কর্মরত। বাংলাদেশিদের হাতের ছোঁয়ায় কুয়েতের মরু অঞ্চল আজ সবুজের সমারোহ। বাংলাদেশিরা ধৈর্য, মেধা, পরিশ্রম দিয়ে দেশি-বিদেশি নানাজাতের শাকসবজি ও ফল-মূল ফলায়। এখান হতে উৎপাদিত ফসল কুয়েত সেন্ট্রাল সবজি মার্কেটে ও সুপার সপগুলোতে বিক্রি করা হয়।

কুয়েতে কৃষি অঞ্চল বলে খ্যাত দুটি এলাকা ওয়াফরা এবং আব্দালী। কেবল ওয়াফরাতেই কৃষিকাজ করছেন প্রায় ১২ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি। এসব এলাকায় প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকরা কুয়েতের সিংহভাগ সবজির চাহিদা মেটাতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। কৃষকরা উৎপাদন করছেন ফুলকপি, লাউ, বাঁধাকপি, পালংশাকসহ নানা ধরনের সবজি।

প্রচণ্ড গরমের সময়ও বিশেষ পদ্ধতি ব্যবহার করে শীতকালীন সবজি উৎপাদন করছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। দেশীয় সবজি উৎপাদন করতে পেরে এবং ন্যায্য পারিশ্রমিক পেয়ে খুশি প্রবাসীরা।

তবে আরো জনবল থাকলে বেশি পরিমাণ সবজি উৎপাদনের মাধ্যমে কুয়েতের কৃষিবাজারে বাংলাদেশিদের অবস্থান শক্তিশালী হতো বলে মত প্রবাসীদের।

শীতের মৌসুমে কুয়েতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কুয়েতিরা প্রতি সপ্তাহে পরিবার বন্ধুবান্ধব নিয়ে ঘুরতে আসে। এছাড়া বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকরাও ঘুরতে আসেন; তারা ঘুরে বেড়ান এক মাজরা থেকে আরেক মাজরায়।

  •  
  •  
  •  
  •