বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ বৈজ্ঞানিক প্রতিবেদন লিখণ’ শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধন

DSC_0665

বাকৃবি প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (ময়মনসিংহ) আগস্ট – ৭  বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সোমবার (৭ আগস্ট-২০১৭) কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান অনুষদের কনফারেন্স রুমে ডেনিস ইন্টান্যাশন্যাল ডেভেলোপমেন্ট এজেন্সির (ড্যানিডা) অর্থায়নে ব্যাংফিস ওয়ার্ক প্যাকেজ-৩ এর উদ্যোগে ‘পাঙ্গাস ও তেলাপিয়া চাষের মানোন্নয়নে ভ্যালু চেইন ইন বাংলাদেশ প্রকল্পের আওতায় বৈজ্ঞানিক প্রতিবেদন লিখণ’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা শুরু হয়েছে।

কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যাংফিস ওর্য়াক প্যাকেজ-৩ এর টিম প্রধান অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আলী আকবর। বিশেষ অতিথি হিসেবে হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল কুদ্দুছ, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বািবদ্যালয়ের ডীন প্রফেসর বদিউজ্জামান ,গেস্ট অভ অনার টেক্সাস স্টেট ইউনিবার্সিটির প্রফেসর ড. মদন এম. ডে। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাকৃবির কৃষি অর্থনীতি বিভাগের প্রফেসর মোঃ সাইদুর রহমান।

বাংলাদেশে পাঙ্গাস ও তেলাপিয়া মাছের আধুনিকায়নের জন্য চার বছর মেয়াদি প্রকল্পের অংশ এটি। এই প্রকল্পের আওতায় শিক্ষার্থীদের স্নাতকত্তোর ও পিএইচডি ডিগ্রি প্রদান করা হবে।

কর্মশালায় বক্তার বলেন, পাঙ্গাস ও তেলাপিয়া চাষে কম শ্রমিক ও কম খরচ প্রয়োজন হয়। বিশেষজ্ঞরা বলেন আমাদের খামারীরা বেশী মুনাফা লাভের আশায় তাদের পুকুরে প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত মাছ ছাড়ছে।

ফলে পুকুরে প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত খাবার দিতে হচ্ছে। অতিরিক্ত খাবারের কারণে পুকুরের পানিতে সবুজ প্লাংটন তৈরী হচ্ছে। যার কারণে মাছের বর্ণ, স্বাদ গন্ধ সবই নষ্ট হচ্ছে। মানুষ পাঙ্গসের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে।

চিংড়ির পরেই পাঙ্গাস ও তেলাপিয়া এ দুটি মাছ বিদেশে রপ্তানির জন্য অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। এই প্রকল্পের আওয়তায় বিষয়টি সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীন, বিভিন্ন বিভাগের প্রধান,বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি),পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বািবদ্যালয়ের শিক্ষক,আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments