ইন্টারনেটে ধীরগতি থাকবে তিন দিন

নিউজ ডেস্কঃ

ক্যাবল মেরামত ও সংস্কার কাজের জন্য তিন দিন বন্ধ থাকবে দেশের প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল (সি-মি-উই-৪)। ল্যান্ডিং স্টেশন কক্সবাজারে আগামী ২২ অক্টোবর কাজ শুরু হয়ে চলবে ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত। ইন্টারনেট সেবাদান প্রতিষ্ঠানগুলোর দাবি ওই সময় ব্যান্ডউইথের ঘাটতি থাকবে ২০০ জিবিপিএসেরও বেশি। ফলে ওই সময় দেশে ভয়াবহ ইন্টারনেট বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখছেন ইন্টারনেট সেবাদাতারা। একই সাথে ওই সময় দেশের ইন্টারনেটে ধীর গতি হতে পারে বলে ধারণা করছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।তবে এ সময় দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল (সি-মি-ইউ-৫) দিয়ে বিকল্প ব্যবস্থায় দেশে ব্যান্ডউইথ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখা হবে। এরই মধ্যে দেশের ইন্টারনেট সেবাদাতা সংগঠনসহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে চিঠি দিয়ে ওই তিন দিনের জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বলেছে সরকারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিসিএল)।

এ বিষয়ে বিএসসিসিএল বলছে, ওই তিনদিন ব্যান্ডউইথ ঘাটতির পরিমাণ মোট চাহিদার চেয়ে ৫০ জিবিপিএসেরও কম হবে। তিন দিনের জন্য দেশের প্রথম এই সাবমেরিন ক্যাবল বন্ধ থাকার সময় ইন্টারনেটের গতি ধীর হবে বলে জানিয়েছেন বিএসসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মসিউর রহমান।

তিনি জানান, প্রথমবারের মতো সাউথ ইস্ট এশিয়া-মিডল ইস্ট-ওয়েস্টার্ন ইউরোপ-৪ (এসইএ-এমই-ডব্লিউই-৪) নামের এ সাবমেরিন ক্যাবল সম্পূর্ণ বন্ধ করে মেরামত করা হচ্ছে। এতে করে দেশের ইন্টারনেটের গতির উপর সাময়িক প্রভাব পড়বে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে দেশে ব্যবহৃত মোট ব্যান্ডউইথ ব্যবহারের পরিমাণ ৪৪০ জিবিপিএস। এর মধ্যে ৩০০ জিবিপিএসই আসছে প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল থেকে।

Comments

comments