জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষায় বসেছে সাড়ে ২৪ লাখ শিক্ষার্থী

নিউজ ডেস্কঃ

চলতি বছরের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষায় বসেছে ২৪ লাখ ৬৮ হাজার ৮২০ জন শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে জেএসসিতে ২০ লাখ ৯০ হাজার ২৭৭ জন এবং মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে জেডিসিতে তিন লাখ ৭৮ হাজার ৫৪৩ জন শিক্ষার্থী রয়েছেন।
১ নভেম্বর বুধবার সকাল ১০টায় দেশের দুই হাজার ৮৩৪টি একযোগে পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এছাড়া দেশের বাইরে মোট ৯টি কেন্দ্রে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় অংশে নিচ্ছেন ৬শ’ ৫৯ জন পরীক্ষার্থী।
বাংলাদেশের বাইরের কেন্দ্রগুলো সৌদি আরব, লিবিয়া, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), বাহরাইন ও ওমানে রয়েছে।
প্রথমদিন জেএসসিতে বাংলা প্রথম পত্র এবং জেডিসিতে কুরআন মাজীদ ও তাজবিদ বিষয়ে পরীক্ষা চলছে। দেশের ২৮ হাজার ৬২৮টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এই পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন।
চলতি বছর জেএসসি পরীক্ষায় অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯৬ হাজার ২শ’ ১২ জন এবং জেডিসি পরীক্ষায় ১৪ হাজার ৩শ’ ৬৭ জন। আর ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ৭৯ হাজার ২ শ’ ৬৪ জন বেড়েছে।
পাশাপাশি, গত বছরের তুলনায় এ বছর পরীক্ষার্থীর সংখ্যাও ৫৬ হাজার ৪৫ জন বৃদ্ধি পেয়েছে। এ জন্য পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যাও ১শ’টি বাড়ানো হয়েছে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কমেছে ১শ’ ৩৩টি।
বরাবরের মতোই অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় পাবেন শ্রবণ প্রতিবন্ধীসহ অন্য প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীরা। অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় পাবেন অটিস্টিক, ডাউন সিনড্রোম ও সেরিব্রাল পালসিজনিত প্রতিবন্ধীরা।আর দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসজনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই তারা শ্রুতি লেখক সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষা দিতে পারবেন।
চলতি বছর বাংলা দ্বিতীয় পত্র, ইংরেজি প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র ছাড়া সৃজনশীল প্রশ্নে অন্য সব বিষয়ের পরীক্ষা হচ্ছে। নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের চতুর্থ বিষয়সহ ১০টি পত্রে পরীক্ষা দিতে হবে। পরীক্ষা চলবে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত।

Comments

comments