রোগ প্রতিরোধে বেদানার গুণাগুণ

নিউজ ডেস্কঃ

দেখতে যেনো ঠিক লাল কাঁচের টুকরো! চোখ জুড়িয়ে যায়। বেদানার কথা বলছি। ক্লান্তি মেটাতে এক গ্লাস বেদানার জুসের প্রশংসা না করলেই নয়। আমাদের দেশে যেসব সুস্বাদু ফলের মধ্যে বেদানা অন্যতম একটি ফল। বেদানার আদি নিবাস ইরান ও ইরাক হলেও বর্তমানে এটি ভারত উপমহাদেশেও চাষ হচ্ছে।

ফলের রাজা আম হলেও কিন্তু চিকিত্সকরা বলেন ফলের রাজা বেদানা। বেদানা খাদ্য ও পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি সুস্বাদু ফল। সেই সাথে বেদানার রয়েছে অসংখ্য ঔষধি গুণাবলি। বেদানা দেখতে যেমন সুন্দর, খেতেও মিষ্টি। জেনে নিন বেদানার স্বাস্থ্যগুণ।

বেদানার মধ্যে রয়েছে পটাশিয়াম ও ভিটামিন সি। প্রতি দিন বেদানার রস খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে। বেদানার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট গুনও গ্রিন টি বা রেড ওয়াইনের থেকে প্রায় তিন গুণ বেশি। এর মধ্যে রয়েছে তিন প্রকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। ট্যানিন, অ্যান্থো সিয়ানিন ও এলাজিক অ্যাসিড। অ্যান্থোসিয়ানিন দেহ কোষ সুস্থ রাখার ফলে ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে পারে। ফোলা ভাব কমে, ক্ষয় রুখতে পারে।

রক্তচাপ- প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে বেদানা সিস্টোলিক ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

ফলে স্ট্রেস, টেনশন কমে। হার্টের সমস্যা থাকলে হার্টের অসুখে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও কমে।

কোলেস্টেরল-আর্টারি পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে বেদানা। বেদানার রস তাই রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে দারুণ উপযোগী। এর পলিফেনল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য ভাল রাখতে সাহায্য করে। রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেশি হলে রোজ খান বেদানার রস।

ক্যানসার-অ্যাপপটোসিস প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ক্যানসার নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে বেদানা। প্রস্টেট ক্যানসার, ব্রেস্ট ক্যানসারে ভাল কাজ করে বেদানার অ্যান্টিক্যানসার এজেন্ট।

ডায়রিয়ার সমস্যায় বেদানা খুবই উপকারী। দিনে দু’তিনবার বেদানার জুস খেতে পারলে ডায়রিয়া ভালো হয়ে যাবে।

প্রতিদিন বেদানার রস খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে। তবে অবশ্যই শরীরের রোগকে চীরতরে বিদায় জানাতে হলে বেশি করে ফলমূল খেতে হবে।

Comments

comments