শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক উদ্বোধন ১০ ডিসেম্বর

যশোর সংবাদদাতা:
যশোরে নবনির্মিত ‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে’র সম্পূর্ণ নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। আগামী ১০ ডিসেম্বর এর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আগামী ১২ ডিসেম্বর সারাদেশে প্রথমবারের মতো পালন করা হবে ‘জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস’ জানায় হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ।

এ অনুষ্ঠান সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করবার জন্য ছুটির দিনগুলোতে যোগাযোগ ও প্রযুক্তি-বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সকল গ্রেডের কর্মকর্তা কর্মচারীদের অফিস খোলা রাখা হয়েছে ।

প্রকল্প সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে যশোরের বেজপাড়া এলাকায় ‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক’ নির্মাণ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। এতে ব্যয় হয় ২৪১ কোটি টাকা। মোট জায়গার পরিমাণ দুই লাখ ৩২ হাজার বর্গফুট। প্রতিটি ফ্লোরে ১৪ হাজার বর্গফুটের জায়গা রয়েছে।

চলতি মাসে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। ধারণা করা হচ্ছে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে ১২ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।

এই হাইটেক পার্কে আধুনিক সকল সুযোগ-সুবিধাসহ রয়েছে ১৫ তলা বিশিষ্ট মাল্টি-টেন্যান্ট বিল্ডিং, আন্তর্জাতিক থ্রি-স্টার মানের আবাসন ও জিমনেসিয়ামের সুবিধাসহ ১২ তলা বিশিষ্ট ডরমিটরি বিল্ডিং, একটি ক্যান্টিন ও এ্যাম্ফিথিয়েটার। ৩৩ কেভিএ পাওয়ার সাব-স্টেশন, ফাইবার অপটিক ইন্টারনেট লাইন এবং অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিসের সুবিধা থাকছে এতে।

রূপকল্প-২০২১ এবং জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) নির্ধারিত সময়ের পূর্বে অর্জনের লক্ষ্যে দেশের সকল বিভাগ/জেলায় হাই-টেক/আইটি পার্ক স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এ পর্যন্ত ২৮টি হাই-টেক/আইটি পার্ক স্থাপনের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে সরকার। এর মধ্যে ঢাকার কারওয়ান বাজারে জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক এবং যশোরে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

এর আগে ৫ অক্টোবর সফটওয়্যার পার্কে চাকরি মেলা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রায় ৩০টি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছিলো। ধারণা করা হচ্ছে, শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে প্রায় ১২ হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে।

Comments

comments