ম্যান সিটির লোভনীয় প্রস্তাব কেন ফিরিয়ে দিলেন মেসি?

স্পোর্টস ডেস্কঃ

বার্সেলোনা আর লিওনেল মেসি যেন সমার্থক শব্দ। স্প্যানিশ ক্লাবটিকেই নিজের ঘর বাড়ি বানিয়ে নিয়েছেন আর্জেন্টাইন খুদে জাদুকর। তারপরও এবার একটা গুঞ্জন ছিল। শুরুতে মেসি বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করায় কথা রটেছিল, এবার বার্সা ছেড়ে ম্যানচেস্টার সিটিতে চলে যেতে পারেন তিনি।

খবরটা যে একেবারে বাতাসে উড়িয়ে দেয়ার মত ছিল না, সেটা জানা গেল সম্প্রতি। পেপ গার্দিওলার দল মেসিকে দলে পেতে কোমড় বেঁধেই নেমেছিল। দারুণ লোভনীয় প্রস্তাবও দিয়েছিল। কিন্তু মেসি সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে দেন।

স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক ‘দ্য মার্কা’র প্রতিবেদনে এসেছে, মেসিকে ১০০ মিলিয়ন ইউরোর ট্রান্সফার ফি’র প্রস্তাব দিয়েছিল ম্যান সিটি। কেউ বলতে পারেন, নেইমারই তো পিএসজিতে গেলেন রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ট্রান্সফার ফিতে। মেসির মতো বিশ্বসেরা ফুটবলারের জন্য ১০০ মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব কমই।

তবে ম্যানচেস্টার সিটি আসলে মেসিকে নিতে চেয়েছিল বিশাল অঙ্কের বেতন দিয়ে, বার্ষিক ৫০ মিলিয়ন ইউরোতে। প্রস্তাবটাও কোনো এজেন্ট বা তৃতীয় কেউ দেননি। দিয়েছিলেন একেবারে ম্যান সিটির মালিক শেখ মনসুন বিন জায়েদ আল নাহিয়ান।

মেসির হাতে লোভনীয় প্রস্তাব ছিল, সেজন্যই বোধ হয় বার্সেলোনাতে চুক্তি সই করতে গড়িমসি করছিলেন। শেষ পর্যন্ত তার সকল দাবি-দাওয়া মেনে নিয়েছে বার্সা। এখানে মেসি পেতেন বার্ষিক ৩০ মিলিয়ন ইউরো। নতুন চুক্তিতে বেতন তো বেড়েছেই।

এছাড়াও বার্সেলোনার সঙ্গে মোট তিনটি চুক্তি রয়েছে মেসির। একটি তার দাতব্য প্রতিষ্ঠান মেসি ফাউন্ডেশনের সঙ্গে, একটি তার ইমেজ সত্ব নিয়ে এবং অন্যটি বেতন নিয়ে। নতুন এই চুক্তি অনুযায়ী বেতন-ভাতা, বোনাস ও অন্যান্য সুবিধা মিলিয়ে বার্সেলোনাতেই বার্ষিক ৫০ মিলিয়ন ইউরোর মত পাবেন মেসি। তবে আর ঘর ছেড়ে যাবেন কেন!

Comments

comments