ঈশ্বরদীতে ৮৮টি ছাগলকে পুড়িয়ে হত্যা

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:
ঈশ্বরদীর বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা নিউ এরা ফাউন্ডেশনের চরমিরকামারিতে ছাগলের ব্রিডিং খামারে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে পুড়ে ৮৮টি ছাগলের মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোরে নাশকতার উদ্দেশ্যে ছাগলের ব্রিডিং খামারে আগুন দেয়ায় এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খামারের অভ্যন্তরে ৮৮টি ছাগল পুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। পুড়ে গেছে কাঠের তৈরি খামারের পাটাতন ও সিলিং। খামারের পূর্বপাশে তারের বেড়া কেটে ফেলা হয়েছে। সেখান দিয়েই দুর্বৃত্তরা এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটাতে পারে।

ঈশ্বরদী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড পিডিবির কর্মকর্তারা পরিদর্শন করে জানিয়েছেন শর্ট সার্কিট থেকে ছাগল খামারে আগুন লাগেনি।

নিউ এরা ফাউন্ডেশনের প্রকল্প সমন্বয়ক মোস্তাক আহমেদ কিরণ জানান, খামারের পাশের ঘরে ঘুমিয়ে থাকা আশার উদ্দিন ভোর চারটার দিকে হঠাৎ দেখতে পায় খামারে আগুন জ্বলছে। তার চিৎকার ও চেচামেচিতে আশপাশের মানুষ ছুটে এসে আগুন নেভাতে চেষ্টা করে। ততক্ষণে ওই আগুনে খামারের মধ্যে থাকা ৮৮টি ছাগল পুড়ে মারা যায়। দুর্বৃত্তরা খামারের পূর্বপাশ থেকে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল।

দুর্বৃত্তরা আগুন ধরানোর জন্য পেট্রল অথবা পাউডার জাতীয় কোনো পদার্থ ব্যবহার করতে পারে। বিষয়টি ঈশ্বরদী থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে।

নিউ এরা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাবেক এমপি মঞ্জুর রহমান বিশ্বাস বলেন, নাশকতার উদ্দেশ্যে দুর্বৃত্তরা আমার ছাগলের খামারে আগুন দিয়ে ৮৮টি ছাগল পুড়িয়ে মেরেছে। এ ফাউন্ডেশন নারীদের ভাগ্যন্নোয়নে কাজ করে যাচ্ছে। আধুনিক ছাগল খামার করে নারীদের ছাগল পালনে উৎসাহিত করা হয়। যারা আগুন দিয়ে ছাগলগুলো পুড়িয়ে মেরেছে তারা মানুষ নয় অমানুষ। শক্রতাবশত ছাগলগুলোকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত থাকতে পারে তা তিনি বলতে পারেননি।

Comments

comments