শাহরুখ খানের সম্পত্তি জব্দ করলো ভারতীয় সরকার!

বিনোদন ডেস্ক:

বেনামি সম্পত্তি রাখার অভিযোগে ভারতীয় সরকার জব্দ করলো বলিউড কিং শাহরুখ খানের আলিবাগের দেজা ভু ফার্ম হাউজ। এই প্রসঙ্গে আয়কর দপ্তর শাহরুখকে নোটিস পাঠিয়ে চেয়েছে জবাবও। এ জন্য ৯০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে শাহরুখকে।

২০০৪ সালে আলিবাগের সমুদ্রতটের থেকে কিছুটা দূরে কেনা হয় এক কৃষি জমি। ১৯ হাজার ৯৬০ বর্গফুটের জমিতে ফার্ম হাউজ তৈরির জন্য শাহরুখ সাড়ে ৮ কোটি রুপি ঋণ নিয়েছিলেন। ফার্ম হাউজের অর্ধেক শেয়ারে নাম ছিল শাহরুখ খান ও গৌরি খানের। বলা হয়েছিল, তিন বছরের মধ্যে সেখানে কৃষিকাজ করা হবে। তদন্তে জানা যায়, কৃষি কাজ নয়, সেখানে ধীরে ধীরে তৈরি করা হয়েছে বিলাসবহুল বাংলো, সুইমিং পুল, হেলি প্যাড।

এরপরই বিনা অনুমতিতে কৃষি জমিতে সুইমিং পুল বানানোর অভিযোগে শুরু হয় তদন্ত। বিষয়টি আয়কর দপ্তরের নজরে আনে তারা। ২০১৭ সালে আলিবাগের কালেক্টর ৮৭ টি বেনামি সম্পত্তি নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন। সেখান থেকেই শাহরুখের দেজা ভু ফার্ম হাউজের নাম উঠে আসে। এ বিষয়ে শাহরুখ খানের প্রযোজনা সংস্থা ‘রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট’ এবং আইপিএল টিম ‘কলকাতা নাইট রাইডার্স’এর সিইও’কে নোটিস পাঠিয়েছে আয়কর বিভাগ। এ প্রসঙ্গে শাহরুখের মুখপাত্রের সঙ্গে যোগযোগ করা হলে, তিনি কিছু বলতে চাননি গণমাধ্যমে।

আলিবাগে শাহরুখের এই বাংলোর আনুমানিক মূল্য ১৪ কোটি ৬৭ লাখ রুপি। বেনামি সম্পত্তি আইন অনুযায়ী কোনও সম্পত্তিকে ৯০ দিন পর্যন্ত জব্দ করা যায়। ফলে আগামী ৩ মাসের জন্য শাহরুখের ওই সম্পত্তি আয়কর দপ্তরের হেফাজতেই থাকছে। কিছুদিন আগেই এই ফার্ম হাউজেই মেয়ে সুহানার জন্মদিনের পার্টি দিয়েছিলেন শাহরুখ।

Comments

comments