বইমেলায় জনি সিন্স ও মিয়া খলিফার নামে স্টল, ৩জন আটক

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলায় তিন দিনব্যাপী একুশে বইমেলায় পর্ন অভিনেত্রী জনি সিন্স ও মিয়া খলিফার নামে স্টলের নাম দেওয়ায় তিন যুবককে আটক করছে পুলিশ। ২০ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার দুপুরে স্টলের তিন মালিক শান্ত, রোকন ও মাহফিজকে আটক করা হয়।

এদিকে বইমেলার স্টলের অশালীন নামকরণ ও ব্যানার টানানোয় একুশের চেতনা ও মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

মেলার আয়োজক কমিটির একজন সদস্য জানান, কালিহাতি উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের সহযোগিতায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী বইমেলা আয়োজন করে কালিহাতী উপজেলা সাধারণ পাঠাগার কমিটি।

১৯ ফেব্রুয়ারি, সোমবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বইমেলার উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মোছাম্মৎ শাহীনা আক্তারের সভাপতিত্বে এ মেলাটির উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোজহারুল ইসলাম তালুকদার।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী এবং প্রধান আলোচক হিসেবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোস্তফা নাজমুল মানছুরসহ স্থানীয় বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা ও সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

জনি সিন্স ও মিয়া খলিফা পর্ন ছবিতে অভিনয় করা দুই তারকার নাম। এ কারণে তাদের নামে বইমেলার স্টলের নামকরণের বিষয়টি মুহূর্তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

ফেসবুকে টাঙ্গাইল সিটিজেন জার্নালিস্ট গ্রুপে ইনাম শাফি নামের এক ইউজার পর্ন তারকার স্টলের ছবি দিয়ে লিখেছেন, ‘কালিহাতিতে একুশে বইমেলায় পর্ন স্টারদের নামে স্টল কর্তৃপক্ষ কীভাবে এইসবের অনুমোদন দেয়? এগুলো কি একুশের অবমাননা নয়?? অন্ততপক্ষে স্টল দেওয়ার আগে স্টলগুলোর নামও দেখতে হয়। এসব আজেবাজে নামে দিয়ে স্টল নিয়ে মর্যাদা পাওয়ার যেয়ে মর্যাদাহানি হচ্ছে এদিকেও কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি দেওয়া উচিৎ।’

বইমেলায় পর্ন তারকার নামে স্টল দেয়ার বিষয়ে টাঙ্গাইলের ভাষা সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা কবি বুলবুল খান মাহবুব বলেন, ‘একুশ আমাদের চেতনা। একুশের ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। সেই একুশের বইমেলার স্টলে একজন পর্ন তারকার নামে ব্যানার টানানো অত্যন্ত দুঃখজনক ও নিন্দনীয়। এটা মোটেও মেনে নেয়া যায় না। এর দায় মেলার উদযাপন কমিটি এড়াতে পারে না।’

প্রশাসনের তত্ত্বাবধায়নে আয়োজন করা বইমেলায় পর্ন তারকার নামের কীভাবে স্টল বরাদ্দ দেওয়া হলো এই প্রশ্নের জবাবে কালিহাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বইমেলার উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মোছাম্মৎ শাহীনা আক্তার বলেন, ‘স্টল বরাদ্দ নেয়ার সময় ওই তিন যুবক ‘রোকন’ নাম দিয়ে স্টল বরাদ্দ নিয়েছিল। পরে তারা ‘জনি সিন্স মিয়া খলিফা’ নাম ব্যবহার করে ব্যানার দিয়েছে। এক নামে বরাদ্দ নিয়ে অন্য নামে ব্যানার ও সেই ব্যানারে কীভাবে পর্ন তারকার নাম ব্যবহার করা হলো সেই বিষয়ে স্টল বরাদ্দ উপ-কমিটির কাছে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।’

এদিকে পর্ন তারকার নামে বইমেলার স্টলের নামকরণ ও স্থানীয়দের প্রতিবাদের মুখে ওই স্টলের স্বত্বাধিকারী তিন যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ২০ জানুয়ারি, মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা প্রশাসন  স্টল থেকে তাদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

এ বিষয়ে কালিহাতি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসন ওই যুবকদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়। বর্তমানে তারা পুলিশি হেফাজতে আছে। তবে তাদের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।’

Comments

comments