এবারও ইউরোপে যাচ্ছে সাতক্ষীরার আম

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা :
চতুর্থবারের মতো ইউরোপের বাজারে সাতক্ষীরার আম রপ্তানি শুরু হয়েছে। শনিবার সদর উপজেলার ধুলিহর গ্রামের আমচাষি জাহাঙ্গীর আলমের বাগান থেকে চার মেট্রিক টন হিমসাগর আম রপ্তানির মধ্য দিয়ে এই কার্যক্রমের সূচনা হয়।

দুপুরে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহসীন রপ্তানি কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

সাতক্ষীরায় দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহযোগ্য বালাইমুক্ত নিরাপদ আম উৎপাদন ও বিপণন শীর্ষক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুপুরে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে সদর উপজেলা পরিষদে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক ইফতেখার হোসেনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহসীন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কৃষিবিদ ড. মো আজহার আলী, খুলনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক নিত্যরঞ্জন বিশ্বাস, সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান প্রমুখ।

সাতক্ষীরার আম ইউরোপের ফ্রান্স, ইতালি, যুক্তরাজ্য ও স্পেনে যাবে। রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জকে পেছনে ফেলে রপ্তানির বাজারে বিশেষ গুরুত্ব পায় সাতক্ষীরার ল্যাংড়া, হিমসাগর ও আম্রপালি আম।

সাতক্ষীরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, জেলার সাতটি উপজেলায় চলতি বছরে চার হাজার হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১১৯৫ হেক্টর জমিতে, কলারোয়া উপজেলায় ৬০২ হেক্টর, তালা উপজেলায় ৭০৫ হেক্টর, দেবহাটা উপজেলায় ৩৬৮ হেক্টর, কালীগঞ্জ উপজেলায় ৮০৫ হেক্টর, আশাশুনী উপজেলায় ১২৫ হেক্টর ও শ্যামনগর উপজেলায় ১৫০ হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে।

জেলায় গোবিন্দভোগ, হিমসাগর, গোপালভোগ, বোম্বাই, গোলাপখাস, ক্ষিরসরাইসহ নানা জাতের আম বাগান রয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি মৌসুমে স্থানীয় চাহিদা মিটিয়েও জেলা থেকে এক হাজার মেট্রিক টন আম বিদেশে রপ্তানি হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। গত বছর যার পরিমাণ ছিল সাতশত মেট্রিক টন।

কলারোয়া উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি অফিসার মনিরুল ইসলাম জানান, গত বছর কলারোয়া উপজেলা থেকে ৪০ মেট্রিক টন আম বিদেশে রপ্তানি হয়েছিল। যা যে কোনো উপজেলার চেয়ে বেশি। এবার এই উপজেলা থেকে ৮০ মেট্রিক টন আম বিদেশে রপ্তানি করা হবে বলে তিনি জানান। এ উপজেলায় আমের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার বাউড়ি বেলতলা ও সিংগা বাজার।

স্থানীয় ব্যবসায়ীদের দাবি, কলারোয়ার সিংগায় নিরাপদ ও বিষমুক্ত আম বাজারজাতকরণের লক্ষ্যে পাইকারি বাজার বসেছে। এই বাজারের আমে কেমিক্যাল মেশানো হয় না বলে তারা জানিয়েছেন।

উপজেলার সিংড়া বাজার আম ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও কেরালকাতা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ জানান, এখানকার পাইকারি বাজার থেকে আম কিনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানোর জন্য ইতিমধ্যে ব্যবসায়ীরা এখানে অবস্থান করছেন।

তিনি আরো জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাট, রাজশাহী, রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের আম ব্যবসায়ীরা এখানে অবস্থান করছেন। এখানকার আম ইউরোপেও রপ্তানি হচ্ছে।

সাতক্ষীরা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচারক কৃষিবিদ কাজী আব্দুল মান্নান জানান, গত চার বছর ধরে এই জেলার আম ইউরোপে রপ্তানি হচ্ছে। এ বছর এক হাজার মেট্রিক টন আম ইউরোপের বাজারে রপ্তানি হবে।

Comments

comments