জেরুজালেমে না খেলতে আর্জেন্টিনার প্রতি আহবান

স্পোর্টস ডেস্ক:

আগামী ৯ জুন বিতর্কিত পূর্ব জেরুজালেমের টেডি স্টেডিয়ামে প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা-ইসরায়েল। ম্যাচটি সেখানে না খেলার জন্য আর্জেন্টিনার প্রতি আহবান জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে ফিলিস্তিন।

সোববার (২৮ মে) আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন, সাউথ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশন এবং ফুটবলবিশ্বের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার কাছে প্রীতি ম্যাচের ভেন্যু নির্বাচন নিয়ে আপত্তি জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন প্যালেস্টিনিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) প্রেসিডেন্ট জিব্রিল রাজউব।

চিঠিতে জিব্রিল রাজউব দাবি করেছেন, জুনের ৯ তারিখে অনুষ্ঠেয় ম্যাচের ভেন্যু টেডি স্টেডিয়াম যেখানে অবস্থিত, সেই স্থানটি ১৯৪৮ সালে ইসরায়েল রাষ্ট্রের জন্মের পর ধ্বংস করে ফেলার আগে ফিলিস্তিনিদের গ্রাম ছিল। সেখানে প্রীতি ম্যাচ আয়োজন করে ফুটবল খেলাকে ‘রাজনীতিকরণ’ করতে চাইছে ইসরায়েল।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, সেখানে প্রীতি ম্যাচের আয়োজন করে দখলদার ইসরায়েল খেলাটির সার্বজনীন মান লঙ্ঘন ও নীতির পরিপন্থী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। একই সঙ্গে এও লেখা হয়েছে যে, ম্যাচটি আর্জেন্টিনার খেলাধুলা এবং নৈতিক অবস্থানের মারাত্মক ক্ষতি করবে।

রাজউব লিখেছেন, তারা (ইসরায়েল) শহরটিকে ইহুদী জনগণের ‘ইউনাইটেড জেরুজালেম’ অভিহিত করে আর্জেন্টাইন জনগণকে ভুল বার্তা দিচ্ছে।

উল্লেখ্য, জেরুজালেম নিয়ে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে তুমুল উত্তেজনা বিরাজ করছে। পূর্ব জেরুজালেমকে নিজেদের ভবিষ্যত রাষ্ট্রের রাজধানী গণ্য করে ফিলিস্তিনিরা। অপরদিকে তেলআবিব থেকে পূর্ব জেরুজালেমে রাজধানী স্থানান্তরের প্রক্রিয়া শুরু করেছে ইসরায়েল।

ইসরায়েলের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে, আর্জেন্টিনা-ইসরায়েল প্রীতি ম্যাচের টিকেট কেনার জন্য ৬ লক্ষ মানুষ আগ্রহ দেখিয়েছে। যদিও টেডি স্টেডিয়ামের দর্শকধারণ ক্ষমতা ৩১,৭৩৩। আগামী ১৬ জুন থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে আর্জেন্টিনার। অন্যদিকে বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে ব্যর্থ হয়েছে ইসরায়েল।

 

সূত্র: টাইমস অব ইসরায়েল

Comments

comments