টাইগারদের প্রধান কোচ হচ্ছেন স্টিভ রোডস!

স্পোর্টস ডেস্ক:

অবশেষে অপেক্ষা ফুরাচ্ছে। কোচ পাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান স্টিভ রোডস। এই সপ্তাহ শেষেই তিনি বাংলাদেশের দায়িত্ব নিতে পারেন বলে জানা গেছে। চান্দিকা হাতুরুসিংহের পদত্যাগের আট মাসের মাথায় প্রধান কোচ হিসেবে কাউকে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)।

বিসিবির পছন্দের তালিকায় আরও কয়েকজন কোচের নাম ছিল। অবশ্য স্টিভ রোডস বিসিবির প্রথম পছন্দ। তাই কেবল তাকেই সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হয়েছে। এই সপ্তাহের শেষেই রোডসের বাংলাদেশে আসার কথা।

এটা কি গ্যারি কারস্টেনের কাজের উদ্যোগের ফল? সেটাই হওয়ার কথা। বাংলাদেশের কোচ খোঁজার কাজটি দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই ব্যাটসম্যান কিছুদিন আগেই বিসিবির কাছ থেকে বুঝে নিয়েছেন। এর মধ্যেই সফল হওয়ার পথে ভারতকে ২০১১ বিশ্বকাপ জেতানো কারস্টেন। কারণ রোডসকে কোচ করার পরামর্শ কারস্টেনই দিয়েছেন। এ ছাড়া ব্যাটিং কোচ হিসেবে ল্যান্স ক্লুজনারকে পাওয়ার যে চেষ্টা চালাচ্ছে বিসিবি, সেখানেও তদারকি আছে প্রোটিয়া এই কোচের।

সামনের সপ্তাহে ৫৪-তে পা রাখতে যাওয়া রোডস ইংল্যান্ডের হয়ে ১১টি টেস্ট ও নয়টি ওয়ানডে খেলেছেন। ১৯৮৫ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত ওরচেস্টারশায়ারের হয়ে খেলা রোডস ২০০৬ সালে ক্লাবটির কোচের দায়িত্ব পান। দীর্ঘ সময় ক্লাবটিকে পথ দেখিয়েছেন তিনি। কিন্তু গত বছর এসে ওরচেস্টারশায়ার কর্তৃপক্ষ রোডসকে কোচের পদ থেকে অব্যহতি দেন। ২০১৬ সালে বাংলাদেশে সফরে ইংল্যান্ড দলের কোচিং স্টাফ হিসেবে কাজ করেছেন রোডস।

বাংলাদেশের কোচ হওয়ার বিষয়ে ইংলিশ এই কোচ বলেন, ‘আমি এটা নিশ্চিত করতে পারি যে, বাংলাদেশের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আর আমি এটাও নিশ্চিত করতে পারি যে, এমন মর্যাদার পদে কাজ করার আগ্রহ আমার আছে। তবে এই মুহূর্তে কিছুই নিশ্চিত নয়, তাই কারো উচিত হবে না এ নিয়ে কথা বলা বা ধারণা করা।’

স্টিভ রোডস বিষয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘আমরা প্রধান কোচ নিয়োগের জন্য যে সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রস্তুত করেছি। স্টিভ রোডস সেই তালিকায় আছেন এবং এই সপ্তাহের শেষের দিকে বোর্ডকে সরাসরি সাক্ষাৎকার দিতে তিনি ঢাকায় আসবেন। তার সঙ্গে আলোচনা করব এবং তার কথা শুনব। তাকে নিয়োগ দেওয়া হবে কি না, ওই আলোচনার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

২০১৯ বিশ্বকাপের আসর বসবে ইংল্যান্ডে। স্টিভ রোডস ইংলান্ডের হওয়ায় তার অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চায় বিসিবি। কোচ হিসেবে রোডসকে পছন্দ করার ক্ষেত্রে এই বিষয়টি বিশেষভাবে ভূমিকা রেখেছে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী।

সূত্র: ক্রিকবাজ

Comments

comments