শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ২৮ উসকানিদাতার বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে গুজব ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়ে ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমের উসকানিদাতা হিসেবে ২৮টি ফেসবুক ও টুইটার আইডি শনাক্ত করা হয়েছে। এসব আইডির মালিক ও অ্যাডমিনদের আইনের আওতায় আনতে রাতে অভিযান চালাবে পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ।

এ ঘটনায় গত ২ আগস্ট রাজধানীর রমনা থানায় একটি মামলা করেছে পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ। জাগো নিউজকে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রমনা থানা পুলিশ। মামলা নম্বর-১।

সাইবার ক্রাইম ইউনিটের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘২৮ আইডির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আইডিগুলো থেকে মিথ্যা এবং বিভ্রান্তিমূলক তথ্য প্রকাশ করে কোমলতি শিশুদের মনকে নষ্ট করে তাদের খারাপ কাজের জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে। শিশুরা এ কাজে যুক্ত হচ্ছে না, কিন্তু একে পুঁজি করে বিভিন্ন দুষ্কৃতকারীরা শিশুদের মাঝে ঢুকে খারাপ কাজ করছে। অচিরেই আইডিগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি। রাত থেকেই আইডির মালিকগুলোর বিরুদ্ধে অ্যাকশন চালানো হবে।’

মামলার এজাহারে দেখা গেছে, যেই ২৮টি আইডির কথা উল্লেখ করা হয়েছে, এগুলোর মধ্যে অসংখ্য শিক্ষার্থীর মৃত্যুর গুজব, নৌমন্ত্রীর পদত্যাগ, প্রধানমন্ত্রীর ভুল বার্তা ইত্যাদি দেয়া হয়েছে।

মামলার এজাহারে যেসব ফেসবুক আইডি ও পেজের কথা উল্লেখ করা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে, জুম বাংলা নিউজ পোর্টাল, বিএনপি সমর্থক গোষ্ঠী কেন্দ্রীয় সংসদ, অ্যাক্সিডেন্ট নিউজ, বাংলামেইল৭১, বাঁশেরকেল্লা, ফাইট ফর সারভাইভার্স রাইট, ফাঁকিবাজ লিংক, আন্দোলন নিউজ।

এছাড়া টু্ইটার আইডিগুলো হচ্ছে- রানা মাসুম-১ , নওরিন-০৭, দিপু খান বিএনপি, ইদ্রিস হোসেইন, এম আল আমিন-৯৯, বিপ্লবী কাজী, নাসিফ ওয়াহিদ ফায়জাল।

এদিকে উসকানির বিষয়ে শনিবার সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, গোয়েন্দা ও সোশ্যাল মিডিয়ার তথ্যে জানা গেছে শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনকে পলিটিসাইজ করার চেষ্টা চলছে। ছাত্রদের স্কুল ড্রেসের বিক্রি ও বানানো বেড়েছে। আমরা ছাত্রদের নিরাপত্তার জন্য শঙ্কিত। যারা এসব কাজ করছে তাদের আমরা চিহ্নিত করেছি।

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহন লিমিটেডের একটি বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। ওই ঘটনার প্রতিবাদে সেদিন থেকেই শিক্ষার্থীরা রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায় অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছে।

Comments

comments