ইলিশের পূর্ণাঙ্গ জীবন রহস্য উন্মোচন করলেন বাকৃবির গবেষক দল

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:
বিশ্বে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের জাতীয় মাছ ইলিশের জীবনরহস্য উন্মোচন করেছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) একদল গবেষক।

ইলিশের ভৌগোলিক স্বীকৃতি বা জিআই পাওয়ার পর দেশীয় ইলিশের রেফারেন্স জিনোম প্রস্তুতকরণ, জিনোমিক ডাটাবেজ স্থাপন এবং মোট জিনের সংখ্যা নির্ণয় করার জন্য ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে গবেষণা শুরু করেন বাকৃবির ওই গবেষকরা। তারই ফলশ্রুতিতে বিশ্বে প্রথমবারের মতো উন্মোচিত হলো ইলিশ মাছের পূর্ণাঙ্গ জীবন রহস্য।

শনিবার সকাল ১০টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন গবেষক দল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ বায়োলজি অ্যান্ড জেনেটিক্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সামছুল আলমের নেতৃত্বে গবেষক দলের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ হচ্ছেন- পোল্ট্রি বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. মো. বজলুর রহমান মোল্যা, বায়োটেকনোলজি বিভাগের প্রফেসর ড. মো. শহিদুল ইসলাম ও ফিশারিজ বায়োলজি অ্যান্ড জেনেটিক্স বিভাগের প্রফেসর ড. মুহা. গোলাম কাদের খান।

গবেষণা কাজটি গবেষকবৃন্দের নিজস্ব উদ্যোগ, স্বেচ্ছাশ্রম এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পারষ্পারিক সহযোগিতার ভিত্তিতে সম্পন্ন করা হয়েছে।

জিনোম হচ্ছে কোনো জীব প্রজাতির সব বৈশিষ্ট্যের নিয়ন্ত্রক বা জীবের পূর্ণাঙ্গ জীবন বিধান। জীবের অঙ্গসংস্থান, জন্ম, বৃদ্ধি, প্রজনন এবং পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়াসহ সব জৈবিক কার্যক্রম পরিচালিত হয় জিনোমে সংরক্ষিত নির্দেশনার মাধ্যমে।

অধ্যাপক ড. সামছুল আলম বলেন, এ গবেষণার মাধ্যমে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশের মৎস্যখাত পূর্ণাঙ্গ জিনোম গবেষণার যুগে প্রবেশ করলো। এর মাধ্যমে মৎস্যখাতে যুগান্তকারী যুগের সৃষ্টি হবে বলে তিনি আশা করেন।

Comments

comments