শিকারির গুলিতে প্রাণ গেল ২ মাথাওয়ালা হরিণের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

যুক্তরাষ্ট্রে শিকারির গুলিতে প্রাণ গেল দুই মাথাওয়ালা এক হরিণের। তবে এই হরিণের দুই মাথা নিয়ে বিপরীত ধর্মী ব্যাখ্যা হাজির করেছে দেশটির কেন্টাকি মার্শাল কাউন্টি কর্তৃপক্ষ।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ইউএসএ ট্যুডে বলছে, কেন্টাকির মার্শাল কাউন্টির শিকারি বব লং ব্যালার্ড কাউন্টির এক অরণ্যে হরিণ শিকার করতে গিয়েছিলেন। এসময় হরিণের একটি পাল দেখে তিনি শিকার তাক করেন। পরে একটি হরিণকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন তিনি। তার ছোড়া গুলিতে একটি হরিণ মুহূর্তের মধ্যে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

পরে কাছে গিয়ে দেখতে পান, গুলিবিদ্ধ হরিণটির দু’টি মাথা। একটি মাথা ঠিক থাকলেও অন্যটি ‘মৃত’; তাতে পচন ধরেছে। কেন্টাকির অভিজ্ঞ এই শিকারি বিস্ময়ে সেই হরিণের ছবি মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ধারণ করেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বব ওই হরিণের একটি ছবি শেয়ার করেন। সেই ছবি কেন্টাকি ডিপার্টমেন্ট অব ফিশ অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ রিসোর্সেসের নজরে আসে। পরে তার এক আশ্চর্য ব্যাখ্যা হাজির করেন। তাদের মতে, এটি মোটেই দু’মাথাওয়ালা হরিণ নয়। পচন ধরে যাওয়া মাথাটি অন্য কোনো হরিণের।

কেন্টাকি ডিপার্টমেন্ট অব ফিশ অ্যান্ড ওয়াইল্ডলাইফ রিসোর্সেস ফেসবুকে একটি পোস্টে বিস্তারিত তুলে ধরেছে। এতে বলা হয়েছে, এই জাতীয় হরিণ মাথায় মাথায় ঢুঁসিয়ে লড়াই করে। হয়তো লড়াইয়ের সময় হেরে যাওয়া হরিণটির মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছিল এবং সেটি বিজয়ী হরিণটির শিংয়ে আটকে যায়। এই বিজয়ী হরিণটিই গুলিবিদ্ধ করেন বব।

ফেসবুকে কেন্টাকি কর্তৃপক্ষের এই পোস্ট মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়ে।

Comments

comments