ফুলেল শুভেচ্ছায় অভিসিক্ত জাপার নয়া মহাসচিব রাঙ্গাঁ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার প্রথম দিনেই মশিউর রহমান রাঙ্গাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নিয়েছেন জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা।

মহাসচিবের দায়িত্ব পাওয়ার পর সোমবার সকালে মশিউর রহমান রাঙ্গা প্রথমে দেখা করেন বিরোধী দলীয় নেতা ও দলের জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদের সঙ্গে। তাকে সালাম করে দোয়া নিয়ে বিকেল ৩টায় চলে আসেন পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বনানী কার্যালয়ে। এ সময় নেতাকর্মীরা তাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে বুকে বুক মেলান রাঙ্গা। দায়িত্ব পালনে নেতাকর্মীদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. হাফিজ উদ্দিন, সুনীল শুভ রায়, আজম খান, এ টি ইউ তাজ রহমান, অবসরপ্রাপ্ত মেজর মো. খালেদ আখতার, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান, মো. নোমান, সোমনাথ দে, মোর্শেদ মুরাদ ইব্রাহিম, জাফর ইকবাল সিদ্দিকী, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু, জহিরুল ইসলাম জহির, আলমগীর সিকদার লোটন, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, জহিরুল আলম রুবেল, দিদারুল কবির দিদার, মোস্তাফিজুর রহমান নাঈম, মোবারক হোসেন আজাদ, আমির হোসেন ভূঁইয়া, মো. জসীম উদ্দিন ভূঁইয়া, মো. হেলাল উদ্দিন, সুলতান মাহমুদ, অনন্যা হুসাইন মৌসুমী, এম এ রাজ্জাক, মৌলভী ইলিয়াস, আবু সাঈদ স্বপন, কাজী আবুল খায়ের, হাসান মঞ্জু, হাফেজ ক্বারী ইসারুহুল্লাহ আসিফ, ফজলে এলাহী সোহাগ, রেজাউল রাজি স্বপন চৌধুরী, আক্কাস আলী সরকার, আজাহার সরকার, আলমগীর কবির, মামুনুর রহমান, দেলোয়ার হোসেন মিলন, ফারুক শেঠ, অলিউল্লাহ মাসুদসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

পরে মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখান থেকে আবার দেখা করতে যান বিরোধী দলীয় নেতার বাসায়। রাতে কাকরাইলের দলীয় কার্যালয়ে আসার কথা থাকলেও তিনি আর আসেননি। নতুন মহাসচিব আসবেন মনে করে বিকেল থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে মুখরিত ছিল দলের কাকরাইলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন উপস্থিত ছিলেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন রাজু, সরদার শাহাজান, জহিরুল ইসলাম জহির, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, জহিরুল আলম রুবেল, মোস্তাকুর রহমান, হারুনুর রশিদ, দপ্তর সম্পাদক সুলতান মাহমুদ, মহিলা পার্টির মনোয়ারা তাহের মানু, যুব সংহতির মোহাম্মদ আলমগীর, দ্বীন মোহাম্মদসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

এদিকে, নতুন মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গাঁর নেতৃত্বে দলকে শক্তিশালী করার জন্য তাৎক্ষণিক মতবিনিময় সভা করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সেক্রেটারি জহিরুল আলম রুবেল। মহানগরীর বিভিন্ন থানা এবং ওয়ার্ড ইউনিটের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন সেখানে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে জহিরুল আলম রুবেল বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডে অলি-গলিতে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। যখন যেখানে প্রয়োজন দলের জন্য আমরা ছুটে যাব। নতুন মহাসচিবের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর দক্ষিণকে এরশাদের দুর্গে পরিণত করতে হবে।

এ সময় কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা মহানগরীর নেতা আমির উদ্দিন আহমেদ ডালু, জাহাঙ্গীর আলম, মাহবুবুর রহমান খসরু, মিনি খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments