রাহাত ফতেহ আলী খানকে অর্থ পাচারের মামলায় শোকজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

পাকিস্তানের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ও উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী নুসরাত ফতেহ আলী খানের ভাতিজা রাহাত ফতেহ আলী খানকে বিদেশে অর্থ পাচারের অভিযোগে শোকজ করেছে দেশটির অর্থ কেলেঙ্কারির ঘটনা তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানানো হয়েছে, বুধবার তদন্ত কর্তৃপক্ষের কাছে সন্তোষজনক উত্তর দিতে না পারায় তাকে শোকজ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে দুই কোটি রুপি অর্থ পাচারের অভিযোগ রয়েছে।

আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে তাকে কারণ দর্শাতে হবে। যথাযথ জবাব দিতে না পারলে যে পরিমাণ আর্থিক কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত তার ৩০০ শতাংশ জরিমানা দিতে হবে তাকে। সংস্থাটি এর আগে ২০১৪ সালে তার বিরুদ্ধে বৈদেশিক অর্থ বিনিময় ব্যবস্থাপনা আইনের আওতায় মামলা করে তদন্ত শুরু করে।

সংস্থাটির আভিযোগ, অন্তত গত তিন বছর ধরে ভারত থেকে বিদেশি মুদ্রা পাচারের সঙ্গে যুক্ত রাহাত ফতেহ আলী খান। ২০১১ সালে দিল্লিতে এক শিল্পপতির বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার সময় সংস্থাটির নজরে পড়েন তিনি। দিল্লি বিমানবন্দরে তার কাছ থেকে ১ লাখ ১৫ হাজার মার্কিন ডলার উদ্ধার হয়।

বিশাল পরিমাণ অর্থ বহনের সঠিক কারণ ও যথাযথ নথিপত্রও দেখাতে না পারায় তার বিরুদ্ধে বৈদেশিক অর্থ বিনিময় ব্যবস্থাপনা আইনে আর্থিক কেলেঙ্কারির মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তার বিরুদ্ধে অভিযো আছে ভারত থেকে বিদেশি মুদ্রা পাচার করে তিনি আয় করেছেন ৩ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার।

Comments

comments