বাকৃবিতে কৃষিবিদ দিবস উপলক্ষে কৃষিবিদদের মিলন মেলা

বাকৃবি প্রতিনিধি:

কৃষিবিদ দিবস উপলক্ষে বুধবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) বসেছিল কৃষিবিদদের মিলন মেলা। সেমিনার, শোভাযাত্রা, জাতীয় পতাকা উত্তোলন প্রভৃতি আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়। এ আয়োজনে দেশবরেণ্য কৃষিবিদসহ প্রায় পাঁচ সহস্রাধিক কৃষিবিদ অংশগ্রহণ করেন।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হেলিপ্যাডে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে কৃষিবিদ দিবসের উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী কৃষিবিদ ড. আব্দুর রাজ্জাক। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের বরেণ্য কৃষিবিদ, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বের হয় বর্ণাঢ্য এক শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বঙ্গবন্ধু চত্ত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

দিবসটি উপলক্ষে সেখানে কৃষিমন্ত্রী কৃষিবিদ ড. আব্দুর রাজ্জাক, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু ও সংসদ সদস্য কৃষিবিদ আব্দুল মান্নানকে সম্মাননা প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার।

পরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি চত্ত্বরে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে আধুনিক কৃষি’ শীর্ষক এক জাতীয় সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী কৃষিবিদ ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ ছিল একটি তলাবিহীন ঝুড়ির মতো। দেশের মানুষ দুই বেলা ঠিক মত খাবার পেত না। সেই দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে। দেশের প্রতিটি মানুষ এখন তিন বেলা খাবার খেতে পারে।

তিনি বলেন, দেশে পুষ্টি জাতীয় খাবারের উৎপাদন পূর্বের চেয়ে অনেকাংশে বেড়েছে। কিন্তু উৎপাদনের সঙ্গে মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি না পাওয়ায় চাহিদা থাকা সত্তেও পুষ্টিযুক্ত খাবার কিনতে পাচ্ছে না দেশের মানুষ। তাই সরকারের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ দেশে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে শিল্পায়নের মাধ্যমে মানুষের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি করা। এতে মানুষ চাহিদা অনুযায়ী পুষ্টিযুক্ত খাবার ক্রয় করতে পারবে এবং দেশের মানুষের পুষ্টি নিরাপত্তা সম্ভব হবে।

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলী আকবরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু ও সংসদ সদস্য কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাকৃবির এমিরিটাস অধ্যাপক কৃষিবিদ ড. এম এ সাত্তার মন্ডল এবং প্রবন্ধের আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ ও বিডিবিএলের সাবেক চেয়ারম্যান কৃষিবিদ মো. ইয়াছিন আলী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. জসিমউদ্দিন খান ও বাকৃবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাহী সম্পাদক কৃষিবিদ বদিউজ্জামান বাদশাসহ দেশ বরেণ্য কৃষিবিদরা।

Comments

comments