আয়াক্সের মাঠে রিয়ালের দুর্দান্ত জয়

স্পোর্টস ডেস্ক:

বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেলায় আয়াক্সের মাঠে গিয়ে দারুণ চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। শেষ পর্যন্ত অবশ্য জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে পেরেছে তারা। আমস্টাডার্মের ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় আয়াক্সের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় পেয়েছে সান্তিয়াগো সোলারির দল।

এদিন বল দখলে দুই দলই ছিল সমান সমান। তবে প্রতিপক্ষের গোল মুখের শটে এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরাই। কিন্তু তাদের নেওয়া ১৯টি শটের মধ্যে টার্গেটে ছিল ৭টি। গোল এসেছে একটি থেকে। অন্যদিকে আয়াক্সের গোল মুখে ১৩টি শট নিয়েছেন বেনজেমা-বেলরা। যার মধ্যে টার্গেটে ছিল ৮টি। আর জালের খোঁজ পেয়েছে ২টি।

শুরুর দিকে অবশ্য নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি মাদ্রিদের ক্লাবটি। তবে ম্যাচের ১৫ মিনিটে উল্লেখযোগ্য সুযোগটি তৈরি করে রিয়ালই। কিন্তু ভিনিসিউসের জোরালো শটটি কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে দেন আয়াক্সের গোলকিপার।

ম্যাচের ২৭ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো স্বাগতিকরাও। কিন্তু সার্বিয়ান ফরোয়ার্ড দুসান তাদিচের শটটি পোস্টে লেগে ফেরি যায়। তার আট মিনিট পর আয়াক্সকে এগিয়ে দেওয়ার সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ হন হাকিম। ১০ গজ দূরে থিবো কোর্তোয়াকে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি মরক্কোর এই মিডফিল্ডার।

ম্যাচের ৩৮ মিনিটে রিয়ালের জালে বল জড়াতে পেরেছিল ডাচ ক্লাবটি। কিন্তু ভিএআর প্রযুক্তি সে যাত্রায় বাঁচিয়ে দেয় বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। আয়াক্সের আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস তাগলিয়াফিকো হেডে জালে জড়ানোর সময় অফ সাইডে ছিলেন তার সতীর্থ তাদিচ।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে করিম বেনজেমার গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল। ম্যাচের ৬০ মিনিটে দারুণ এক আক্রমণে দলকে এগিয়ে দেন তিনি। তবে তার ঠিক ১৫ মিনিট পর সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। ম্যাচের ৭৫ মিনিটে বাঁ দিক থেকে নেরেসের বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে নিখুঁত শটে গোল করেন হাকিম।

আর ম্যাচের একেবারে শেষ দিকে, ৮৭ মিনিটে দলের জয়সূচক গোলটি করেন বেনজেমার বদলি নামা মার্কো আসেনসিও। কারভাহালের বাড়ানো বল থেকে গোল করেন এই স্প্যানিশ মিড ফিল্ডার।

Comments

comments