গোল করলেও জুভেন্টাসকে জেতাতে পারলেন না রোনালদো

স্পোর্টস ডেস্ক:

চোট শঙ্কা কাটিয়ে ঠিকই শুরুর একাদশেই খেললেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। গতকাল রাতে নিজের প্রত্যাবর্তনের ম্যাচটিতে একটা গোলও করেছেন পর্তুগিজ সুপার স্টার। কিন্তু রোনালদোর সেই গোলও আয়াক্সের ঘরের মাঠ ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় জুভেন্টাসকে জেতাতে পারেনি। কাল দুই দলের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগ ম্যাচটি ড্র হয়েছে ১-১ গোলে।

তবে এই ড্র পরও নেদারল্যান্ডস থেকে স্বস্তি নিয়েই ফিরেছে জুভেন্টাস। কারণ তাদের হাতে রয়েছে মহামূল্যবান একটি অ্যাওয়ে গোল। আগামী ১৬ এপ্রিল ফিরতি লেগটি জুভেন্টাসের ঘরের মাঠে। ফলে কালকের এই ড্র তুরিনের ওল্ড লেডিদের মুখে হাসিই গুঁজে দিয়েছে।

গত মাসে পর্তুগাল জাতীয় দলের হয়ে সার্বিয়ার বিপক্ষে ইউরো বাছাইয়ের ম্যাচে উরুতে চোট পান রোনালদো। সেই থেকে ক্লাব জুভেন্টাসের হয়ে একটি ম্যাচও খেলতে পারেননি। শঙ্কা ছিল আয়াক্সের বিপক্ষে এই ম্যাচে খেলা নিয়েও। কিন্তু সেই শঙ্কা কাটিয়ে ঠিকই কাল শুরু থেকেই খেললেন তিনি।

রোনালদোকে পাওয়ার জন্য কেন জুভেন্টাস এতটা আকুল ছিল, সেটি তিনি প্রমাণও করেছেন। ম্যাচের শুরুতেই বেশ কয়েকবার আয়াক্সের রক্ষণ কাঁপিয়েছেন পর্তুগিজ তারকা। প্রথমার্ধের অন্তিম মুহূর্তে পেয়ে যান গোলও। ৪৫ মিনিটে বুলেটগতির এক হেডে জুভেন্টাসকে এগিয়ে দেন পর্তুগিজ তারকা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যেটি তার ১২৫তম গোল। তবে তার এনে দেওয়া এই লিড খুব বেশি সময় ধরে রাখতে পারেনি জুভেন্টাস। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই স্বাগতিক আয়াক্সকে সমতায় ফেরান ডেভিড নেরেস ক্যাম্পোস। এরপর আয়াক্স চেষ্টা করেছে ঘরের মাঠের সুবিধা কাজে লাগিয়ে গোল করে এগিয়ে যাওয়ার। কিন্তু জুভেন্টাসের রক্ষণ আয়াক্সকে সফল হতে দেয়নি।

প্রথম লেগের স্কোরকার্ড বলছে জুভেন্টাসই এগিয়ে। কিন্তু জুভদের মনে একটা ভয়ও কাজ করছে। শেষ ষোলতে এই আয়াক্সের মাঠ থেকেই ২-১ গোলে জিতে ফিরেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু ফিরতি লেগে রিয়ালের মাঠে এসেই রিয়ালকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে ইতিহাস লিখেছে পুঁচকে আয়াক্স। টানা তিন বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়ালকে বিদায় করে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৩ অগ্রগামিতায় আয়াক্স জায়গা করে নেয় শেষ আটে!

সুতরাং রিয়ালের মাঠে গিয়ে যারা এমন রূপকথার জন্ম দিয়েছে, তাদের নিয়ে ভয় থাকাটাই স্বাভাবিক তবে সেই ভয়ের চেয়ে জুভেন্টাসের স্বস্তিটাই বেশি।

Comments

comments