জুটি বাঁধছেন জুনিয়র এনটিআর-শ্রদ্ধা

নিউজ ডেস্ক:

বাহুবলি সিনেমাখ্যাত পরিচালক এসএস রাজামৌলি। জুনিয়র এনটিআর ও রাম চরণকে নিয়ে তার পরবর্তী সিনেমা ট্রিপল আর নির্মাণ করছেন তিনি। সিনেমাটিতে আরো অভিনয় করছেন বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট, অভিনেতা অজয় দেবগনসহ অনেক তারকা অভিনয়শিল্পী।

সিনেমাটির অন্যতম বড় চমক ছিলেন ব্রিটিশ অভিনেত্রী ডেইজি এডগার জোন্স। জুনিয়র এনটিআরের বিপরীতে পর্দায় হাজির হওয়ার কথা ছিল কোল্ড ফীট, ওয়ার অব দ্য ওয়ার্ল্ড, পন্ড লাইফখ্যাত এই ব্রিটিশ অভিনেত্রীর। কিন্তু সিনেমাটি থেকে সরে যান তিনি। শোনা যাচ্ছে, তার পরিবর্তে সিনেমাটিতে জুনিয়র এনটিআরের সঙ্গে জুটি বাঁধছেন বলিউড অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুর।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ডেইজির পরিবর্তে নির্মাতারা শ্রদ্ধা কাপুরকে নিতে চাইছেন। চরিত্রটির জন্য পরিণীতি চোপড়ার নামও ভেবেছিলেন তারা। যেহেতু প্রভাসের সঙ্গে সাহো’র মাধ্যমে তেলেগু ভাষার সিনেমায় শ্রদ্ধার অভিষেক হচ্ছে, তাই এ অভিনেত্রীকেই চরিত্রটির জন্য এগিয়ে রাখছেন নির্মাতারা। শুধু তাই নয়, সিনেমাটিতে বরুণ ধাওয়ান ও সঞ্জয় দত্তকেও দেখা যেতে পারে।

এর আগে ট্রিপল আর সিনেমা থেকে সরে যাওয়া প্রসঙ্গে ইনস্টাগ্রামে ডেইজি লিখেছিলেন, ‘দুঃখজনক, পারিবারিক কারণে আমি অপূর্ব এই সিনেমাটিতে অভিনয় করতে পারছি না। চিত্রনাট্য সত্যিই চমৎকার এবং চরিত্রটি অসাধারণ, আমি আশা করব যাকেই চরিত্রটির জন্য নেয়া হবে তাকেও সবাই আমার মতো স্বাগত জানাবে। সিনেমাটির জন্য শুভকামনা’

ট্রিপল আর সিনেমার প্রেক্ষাপট ১৯২০ সাল। কমারাস ভীমা (জুনিয়র এনটিআর) ও আলুরি সীতারামা রাজু (রাম চরণ) নামের দুই বীর যোদ্ধাকে নিয়ে সিনেমার গল্প তৈরি। সিনেমাটির বাজেট ৩৫০-৪০০ কোটি রুপি। চারটি ভাষায় সিনেমাটির শুটিং চলছে। তবে দশটির বেশি ভাষায় এটি মুক্তির পরিকল্পনা করছেন নির্মাতারা। ২০২০ সালের ৩০ জুলাই সিনেমাটির মুক্তির তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

 

Comments

comments