আড়ং কে জরিমানা করা অফিসারের বদলির আদেশ স্থগিত

নিউজ ডেস্ক:

জেগেে উঠেছে বিবেকবান সমাজ, জয় হয়েছে প্রতিবোদের। অবশেষে আড়ং এ অভিযান চালানো ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের অফিসার (উপ-পরিচালক) মনজুর মো. শাহরিয়ারকে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর খুলনা জোনে বদলির আদেশ স্থগিত করা হয়েছে। তাকে বদলির আদেশের একটি কপি সোমবার দিবাগত রাতে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। চলে বিতর্ক। এরপরই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন তার বদলির আদেশ স্থগিতের নির্দেশ দেন।আড়ং এ অভিযান চালানো ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের অফিসার (উপ-পরিচালক) মনজুর মো. শাহরিয়ারকে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর খুলনা জোনে বদলির আদেশ স্থগিত করা হয়েছে। তাকে বদলির আদেশের একটি কপি সোমবার দিবাগত রাতে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। চলে বিতর্ক। এরপরই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন তার বদলির আদেশ স্থগিতের নির্দেশ দেন।

এর আগে, রাজধানীর উত্তরায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে পাঞ্জাবির দাম বেশি রাখার অভিযোগে আড়ংকে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ জরিমানা করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। সংস্থাটির উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অভিযানকালে তারা দেখেন, আড়ংয়ের ওই শো-রুমে ৭০০ টাকার পাঞ্জাবি ১ হাজার ৩০০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছিল।

জানা গেছে, গত ২৫ মে একজন ক্রেতা উত্তরা আড়ং থেকে একটি পাঞ্জাবি কেনেন ৭১৩ টাকায়। একই পাঞ্জাবি ৩১ মে কিনতে গেলে দাম রাখা হয় ১ হাজার ৩১৫ টাকা। এ চিত্র তুলে ধরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করেন ওই ভোক্তা। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল উত্তরা আড়ং-এ অভিযান চালিয়ে অভিযোগের সত্যতা পায় সংস্থাটি। এ সময় বেশি দাম রাখার কোনো কারণ জানাতে পারেনি আড়ংয়ের ওই শো-রুমের কর্মকর্তারা। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার জানান, আড়ং একটি ব্র্যান্ড। দেশি ভালো পণ্য বিক্রি করে বলে তাদের প্রতি ক্রেতাদের রয়েছে আস্থা ও সরল বিশ্বাস। এটি পুঁজি করে কৌশলে ক্রেতাদের ঠকাচ্ছে, যা ভোক্তা আইনপরিপন্থী।

Comments

comments