স্মিথের কাছে সমর্থকদের হয়ে ক্ষমা চাইলেন কোহলি

স্পোর্টস ডেস্ক:

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির জের বিশ্বকাপেও টানতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দুই সেরা ক্রিকেটার স্টিভেন স্মিথ আর ডেভিড ওয়ার্নারকে। বিশ্বকাপের আগে থেকেই ইংলিশ সমর্থকরা বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির কারণে দুই অসি ক্রিকেটারকে চিটার বলে ডাকার ঘোষণা দিয়েছিল।

কিন্তু স্টিভেন স্মিথদের কি না মাঠে নেমে ‘চিটার’ গালিটা শুনতে হলো ভারতীয় সমর্থকদের মুখ থেকেই। লন্ডনের কেনিংটন ওভালে রোববার ছিল ভারত-অস্ট্রেলিয়া মহারণ। এই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে ৩৫২ রান স্কোরবোর্ডে তোলে ভারত।

ভারতের ইনিংস চলাকালেই বাউন্ডারি লাইনে দাঁড়িয়ে ফিল্ডিং করছিলেন স্টিভেন স্মিথ। তখন গ্যালারি থেকে তাকে ‘চিটার, চিটার’ বলে গালি দেয়ার সঙ্গে উত্যক্ত করারও চেষ্টা চলছিল।

কিন্তু ওই সময় হঠাৎই স্টিভেন স্মিথের পক্ষে দাঁড়ান বিরাট কোহলি। ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে হাত দিয়ে ইশারা করে ভারতীয় সমর্থকদেরকে নিষেধ করেন স্মিথদের গালি দিতে। কোহলির আহ্বানে সমর্থকরা ধুয়ো ধ্বনি দেয়া বন্ধ করে ঠিকই। কিন্তু কোহলির মধ্যে আত্মসমালোচনা বোধটা থেকে যায়।

যে কারণে ম্যাচ শেষে জয়ী দলের অধিনায়ক হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে এসে বিরাট কোহলি মিডিয়ার মাধ্যমে ভারতীয় সমর্থকদের পক্ষ থেকে স্টিভেন স্মিথের ক্ষমা প্রার্থনা করলেন।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে কোহলি বলেন, ‘কি ঘটেছিল সেটা তো অনেক আগের। সে এখন তার নিজের দল এবং দেশের জন্য সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলার চেষ্টা করছে। মাঠের মধ্যে অনেক কিছুই আছে, যেগুলো নিয়ে আমরা কথা বলতে পারি, কাজ করতে পারি। কিন্তু এটা তো কোনোভাবেই দেখতে চাই না যে, একজন ব্যক্তিকে নিয়মিতই আঘাত করে যাওয়া হচ্ছে কোনো একটা পুরনো ভুল ধরে।’

ভারতীয় সমর্থকদের পক্ষ থেকে এ ধরনের আচরণ কোনোভাবেই আশা করেন না কোহলি। তিনি বলেন, ‘আমি চাই না ভারতীয় সমর্থকরা বাজে কোনো নজির স্থাপন করুক। আমি তার কষ্টটা অনুধাবন করেছি এবং তাকে বলেছি, ভারতীয় সমর্থকদের পক্ষ থেকে তোমার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আমার মতামত হচ্ছে, এ ধরনের (সমর্থকদের পক্ষ থেকে) আচরণ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

Comments

comments