আম্পায়ারের সঙ্গে অসদাচরণের কারনে জরিমানার কবলে কোহলি

স্পোর্টস ডেস্ক:

শনিবার অসাধারণ একটি দিন কাটিয়েছে বিশ্বকাপ। অনুষ্ঠিত হওয়া দুটি ম্যাচেই ছিল টান টান উত্তেজনা। যেন কোনো থ্রিলার মুভি পরিবেশিত হয়েছে সাউদাম্পটন আর ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। দুই ম্যাচই টানটান উত্তেজনায় শেষ ওভার পর্যন্ত গড়িয়েছে। শেষ পর্যন্ত দুই ম্যাচে জয় পেয়েছে ভারত এবং নিউজিল্যান্ড। তবে হারলেও নজর কেড়েছে আফগানিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের পারফরম্যান্স।

বিশেষ করে আগফগানদের কথা আলাদাভাবেই বলতে হয়ে। আন্ডারডগ দল হয়ে একপ্রকার কাঁপিয়েই দিয়েছে আসরের টপ ফেবারিট ভারতকে। মোহাম্মদ নবি-রশিদ খানদের হারাতে রীতিমত ঘাম জরাতে হয়েছে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। শেষ পর্যন্ত স্বস্তির এক জয় নিয়েই ড্রেসিংরুমে ফিরেছে তারা।

তবে এই ম্যাচে জয় পেলেও জরিমানার কবলে পড়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ইনিংসের ২৯তম ওভারে ভারতের করা এক এলবিডব্লিউ আউটের আবেদন ফিরিয়ে দেন আম্পায়ার আলিম দার। পরে রিভিউ নিলেও ফল ভারতের পক্ষে আসেনি। আর তাতেই আম্পায়ারদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন কোহলি।

আইসিসির পক্ষ থেকে এব সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আম্পায়ারদের সাথে এমন ব্যবহার করে খেলোয়াড় আচরণবিধি লঙ্ঘণ করেছেন কোহলি। সে কারণেই তার ম্যাচ ফির ২৫ ভাগ জরিমানা করা হয়। একই সঙ্গে কোহলির আচরণ সম্পর্কিত রেকর্ডে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ করে দেয়া হয়। ম্যাচ শেষে ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রডের কাছে গিয়ে দোষ স্বীকার করেন কোহলি এবং শাস্তি মেনে নেন। যে কারণে শুনানির আয়োজন করতে হয়নি।

এই নিয়ে এখনো পর্যন্ত কোহলির নামের পাশে দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হলো। এর আগে ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরদ্ধে টেস্ট সিরিজে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পান ভারতের এই মারকুটে ব্যাটসম্যান। আরেকটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হলে একটি টেস্ট ম্যাচ কিংবা দুটি ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন ভারতের অধিনায়ক।

Comments

comments