১০৯ নম্বরে কল করে তানোরে স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি:

মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের জাতীয় হেল্প লাইন ১০৯ নম্বরে কল করে রাজশাহীর তানোরে বিথি হালদার (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে। বিথি উপজেলার মুন্ডুমালা সদরের সাদিপুর এলাকার অরুণ হালদারের মেয়ে। সে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রের্ণীর শিক্ষার্থী।

সূত্র জানায়, রোববার রাতে পার্শ্ববর্তী গ্রামের নিজ হিন্দু সম্প্রদায়ের এক যুবকের সঙ্গে বিথি হালদারের বিয়ের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু ১৩ বছরের বিথির বিয়ে মেনে নিতে পারেনি প্রতিবেশী অনেকেই। এদের মধ্যে একজন সচেতন ছেলে মহিলাবিষয়ক অধিদফরের জাতীয় হেল্প লাইন ১০৯ নম্বারে কল করে বিথির বাল্যবিয়ের খবর জানান। পরে তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন বানুকে মহিলাবিষয়ক অধিদফতর থেকে বাল্য বিয়ে বন্ধের জন্য জরুরি পদক্ষেপ নিতে বলা হয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) থানার একদল পুলিশ সদস্যসহ রোববার দুপুরেই বিথির বাড়িতে উপস্থিত হয়ে তার বিয়ে বন্ধ করে দেন। এ সময় বাড়িতে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরিন বানু এই প্রতিবেদককে জানান, মহিলাবিষয়ক অধিদফতর থেকে ফোন পাওয়ার পর বিথির বাল্যবিয়ে বন্ধের জন্য জরুরি পদক্ষেপ নেয়া হয়। এ সময় পুলিশসহ নিজে উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করে তাৎক্ষণিক বিথির বাবা অরুণ হালদার ও মা দিপালী হালদারকে উপজেলা কার্যালয়ে ডেকে এনে বাল্যবিয়ে না দেয়ার শর্তে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

Comments

comments