বাকৃবিতে অটোবাইক ছিনতাইকারী চক্রের ৪ সদস্য আটক

বাকৃবি প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) অটোবাইক ছিনতাইকারী চক্রের ৪ সদস্যকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তাকর্মীরা। চালককে অজ্ঞান করে অটোবাইক ছিনতাই করার সময় প্রাইভেটকারসহ অজ্ঞান পার্টি চক্রের চার সদস্যকে আটক করে তারা।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে বাকৃবির ২ নং জোন থেকে ১ জন পালিয়ে গেলেও ৮ জনকে  আটক করা হয়। আটকরা হলেন- সুমন (৪০- মাদারীপুর) , আরব আহমেদ বেলাল (৩৫-মাদারীপুর), সাত্তার (৪০) শরিয়তপুর ও কামাল হোসেন (৪০- পটুয়াখালী)। বাহিরের সংঘবদ্ধ এসব অপরাধী চক্র দীর্ঘদিন থেকে  অটো ছিনতাই করে যাচ্ছে বলে জানা যায়।

কর্তব্যরত জোন ইনচার্জ অনুমান করে বলেন এরকম আরও চক্র থাকতে পারে যারা বাকৃবি ক্যাম্পাসে বিভিন্ন সময় এসে আটোচালককে অজ্ঞান করে অটোবাইক ছিনতাই করে। গত কয়েকদিন আগে প্রাইভেটকারসহ একটি চক্র বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচতলা ভবন সংলগ্ন একটি আটোবাইক চালককে অজ্ঞান করে অটোবাইকটি নিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে নিরাপত্তাকর্মীরা প্রথমে অজ্ঞান চালককে রক্ষা করতে গেলে প্রতারক চক্রটি পালিয়ে যায়।

গত কয়েক মাস আগে থেকে এসব চক্র ক্যাম্পাসে চালকদের বিভিন্ন খাবার খাওয়ানোর মাধ্যমে অজ্ঞান করে অটোবাইক ছিনতাই করে আসছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাকৃবির হেলিপ্যাডের সামনে রিয়াজ উদ্দিন নামে এক অটোবাইক চালককে পানি ও বিস্কুট খাওয়ানোর চেষ্টা করেন অজ্ঞান পার্টির কয়েকজন সদস্য। এসময় বিষয়টি নজরে এলে হাতেনাতে চক্রের ওই চার সদস্যকে আটক করেন নাহিদ এবং শুধাংশু নামে দু’জন নিরাপত্তাকর্মী। পরে আটকদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এসময় তারা অজ্ঞান করে অটোবাইক ছিনতাই ও প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার কথা স্বীকার করেন।

এ বিষয়ে বাকৃবির প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল হক বলেন, আটক অজ্ঞান পার্টির চার সদস্যকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে এবং নিরাপত্তাকর্মী নাহিদ ও শুধাংশুকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হবে।

বাকৃবি নিরাপত্তা শাখার চেয়াম্যান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা জোড়দার করা হয়েছে এবং এসব চক্রকারীকে ধরার জন্য বেশ কয়েকদিন থেকে গভীর নজর রাখা হচ্ছিল।

Comments

comments