জুলাই ছিল পৃথিবীর ইতিহাসের উষ্ণতম মাস: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মানুষের ইতিহাস রেকর্ডে গত জুলাই মাস সবচেয়ে উষ্ণতম সময় ছিল বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার (ডব্লিউএমও) উদ্ধৃতি দিয়ে জাতিসংঘ এ তথ্য জানিয়েছে। এই বাড়তি গরমে বিশ্বের মেরু অঞ্চলের বরফ গলে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে যাচ্ছে, যার প্রভাব পড়বে বাংলাদেশের মতো নিচু দেশগুলোতে।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত জুলাই ছিল নথিভুক্ত ইতিহাসে সবচেয়ে উষ্ণ মাস।

এ বিষয়ে বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা (ডব্লিউএমও) এবং কোপার্নিকাস জলবায়ু পরিবর্তন কর্মসূচি থেকে প্রাপ্ত নতুন তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়েছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘ মহাসচিব এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে এখনই ব্যবস্থা নেয়া না হলে আবহাওয়া পরিস্থিতি চরমে পৌঁছাবে। বিশ্বের নেতৃস্থানীয় বিজ্ঞানীরা আমাদের বলেছেন যে যদি জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে খারাপ প্রভাব এড়াতে চাই তাহলে আমাদের অবশ্যই তাপমাত্রা বৃদ্ধি ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সীমিত রাখতে হবে। আমাদের ২০৩০ সালের মধ্যে গ্রিনহাউজ গ্যাসের নির্গমন ৪৫ শতাংশ হ্রাস করা দরকার।

২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিরপেক্ষতা অর্জন করতে হবে উল্লেখ করে গুইতেরেস আরও বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি কাটিয়ে উঠা বৃদ্ধি, ঝুঁকি হ্রাস ও আরও ক্ষতি করতে যাওয়া বিনিয়োগ পরিহারের জন্য সব সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে প্রধান বিষয় হিসেবে জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিগুলো তুলে ধরা প্রয়োজন।

২০১৫ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত গত পাঁচ বছর একটানা গরমের রেকর্ড তৈরি হয়েছে জানিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, ‘আমরা যদি জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে এখনই ব্যবস্থা না নেই, তবে এই চরম আবহাওয়া পরিস্থিতি হিমবাহ ধ্বংস করবে।’

গত ২৫ জুলাই ইউরোপের কয়েকটি দেশের তাপমাত্রা সেখানকার নতুন রেকর্ড ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস স্পর্শ করে। এসব দেশের মধ্যে রয়েছে বেলজিয়াম, জার্মানি ও নেদারল্যান্ড। প্যারিসে ইতিহাসের সর্বোচ্চ গরম ৪২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস প্রত্যক্ষ করে প্যারিসবাসী।

Comments

comments