বুমরাহর বোলিং অ্যাকশন অবৈধ!

স্পোর্টস ডেস্ক:

জাসপ্রিত বুমরাহর বোলিং অ্যাকশনটা আর দশজনের মতো নয়। কিছুটা অদ্ভুত। তবে বোলিংয়ের সময় ভারতীয় এই পেসারের কনুই আইসিসির বেঁধে দেয়া ১৫ ডিগ্রির চেয়ে বেশি বাঁকা হয়, এমন অভিযোগ কখনও তুলেননি আম্পায়াররা।

কিন্তু তারা না তুললে কি হবে? বুমরাহর বোলিং অ্যাকশনের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন আছে অনেকেরই। অনেক সমালোচক মনে করেন, ভারতীয় এই পেসার নিয়ম ভেঙেই বল করে যাচ্ছেন, তাতে ব্যাটসম্যানরাও বেকায়দায় পড়ছেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি জ্যামাইকার টেস্টে দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করেছেন বুমরাহ। ক্যারিবীয়দের প্রথম ইনিংসে ২৭ রানে নিয়েছেন ৬টি উইকেট।

বুমরাহর এমন পারফরম্যান্সকে আবারও বাঁকা চোখে দেখছেন কিছু কিছু সমালোচক। তারা বরাবরের মতো তার অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। সেই সমালোচকদের এবার এক হাত নিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক পেসার ইয়ন বিশপ আর ভারতীয় কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সুনিল গাভাস্কার। দুজনই জ্যামাইকা টেস্টে ধারাভাষ্যকারের দায়িত্ব পালন করছেন।

ধারাভাষ্যের এক পর্যায়ে ইয়ন বিশপ তুলেন বুমরাহর বোলিং অ্যাকশন নিয়ে অনেকের সন্দেহের প্রসঙ্গটি। বিশপ বলেন, ‘আমার বিশ্বাস হয় না, কিছু মানুষ কীভাবে জাসপ্রিত বুমরাহর বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেন! তার অ্যাকশন অনন্য। তবে এটা খেলার নিয়মের মধ্যেই। আসলে এটি নিখুঁত। কিছু মানুষের আসলেই আয়নায় নিজেকে দেখা উচিত।’

বিশপের এমন কথার জবাবে গাভাস্কার বলেন, ‘আপনি কি তাদের নাম বলতে পারবেন? কারা বুমরাহর অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন?’

বিশপ অবশ্য কারও নাম আলাদাভাবে বলেননি। তবে পরে গাভাস্কারের কথার সঙ্গে একমত হয়েছেন। গাভাস্কার বলেন, ‘আরেকটু কাছ থেকে দেখা যাক। কয়েক পা এগিয়ে সে ছন্দ তুলে এবং শেষপর্যন্ত হাত সোজা রেখে বলটা ছাড়ে। এখন আমাকে বলুন, কোথায় তার হাত বাঁকা হচ্ছে? এটা পুরোপুরিই ঠিক আছে। আসলে কিছু মানুষের কাজই হলো বিরক্তিকর কথাবার্তা বলা।’

Comments

comments