পাকিস্তানের নতুন কোচ মিসবাহ

স্পোর্টস ডেস্ক:

গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল অনেকদিন ধরেই। এবার সেটিই সত্যি হলো। পাকিস্তানের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক।

মিসবাহকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তিন বছরের জন্য। কোচের পাশাপাশি তিনি প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বও পালন করবেন।

এ ছাড়া বোলিং কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন দেশটির সাবেক পেসার ওয়াকার ইউনিস। তার সঙ্গেও পিসিবির চুক্তি তিন বছরের।

পাকিস্তানের সবচেয়ে সফলতম টেস্ট অধিনায়ক মিসবাহ নতুন দায়িত্ব পেয়ে আবারো পাকিস্তান দলে ওয়াকারের সঙ্গে একত্রে মিলিত হলেন। মিসবাহর প্রায় সাত বছরের অধিনায়কত্বের সময়ে দুবার পাকিস্তানের প্রধান কোচ ছিলেন ওয়াকার।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতায় কোচ মিকি আর্থার আর তার সহকারীদের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করার সিদ্ধান্তের পর থেকেই প্রধান কোচ খুঁজছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। মিসবাহকে তারা প্রস্তাবও দিয়েছিল। কিন্তু মিসবাহ শুরুতে কোচ পদে আনুষ্ঠানিক আবেদন করতে দেরি করছিলেন।

শেষ মুহূর্তে গিয়ে আবেদন করেন তিনি। এরপর দেন সাক্ষাৎকার। যেখানে মহসিন খান, ডিন জোনসদের পেছনে ফেলে প্রধান কোচের দায়িত্ব পেলেন ৪৫ বছর বয়সি মিসবাহ। একই সঙ্গে কোচ ও প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব পাওয়ায় তাকেই এখন পাকিস্তান ক্রিকেটের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি মনে করা হচ্ছে।

আর ওয়াকার এই নিয়ে পঞ্চমবারের মতো পাকিস্তানের কোচিং স্টাফে যুক্ত হলেন। এর আগে ২০০৬-০৭ সালে বোলিং কোচ, ২০০৯-১০ সালে বোলিং ও ফিল্ডিং কোচ, ২০১০-১১ সালে প্রধান কোচ এবং ২০১৪ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত আবারো প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ব্যর্থতার জন্য চুক্তির মেয়াদ তিন মাস বাকি থাকতেই ২০১৬ সালে পদত্যাগ করেছিলেন ওয়াকার। এবার বোলিং কোচ হিসেবে তিনি আজহার মাহমুদের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

মিসবাহ-ওয়াকার জুটির প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট হবে দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসন্ন সীমিত ওভারের সিরিজ। তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির এই সিরিজটি শুরু হবে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর।

আর আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম টেস্ট সিরিজ শুরু হবে অস্ট্রেলিয়ায়। যেখানে ব্রিসবেনে প্রথম টেস্ট শুরু হবে ২১ নভেম্বর, অ্যাডিলেডে দিবারাত্রির পরের টেস্ট ২৯ নভেম্বর থেকে।

Comments

comments