আমলারা দখল করে নিচ্ছেন বিশেষজ্ঞ পদ

নিউজ ডেস্ক:

বিশেষজ্ঞদের জন্য বিশেষায়িত পদগুলো দখল করে নিচ্ছেন আমলারা। কদিন আগেই স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ছিলেন এস এম গোলাম ফারুক। অবসরে যেতে না যেতেই তার তর সইলো না। শুরু হলো তদবির। তিনি পেয়ে গেলেন পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য পদ। পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান পদটি সিনিয়র সচিব পদমর্যাদার। আর সদস্য পদগুলো সচিব পদমর্যাদার। স্থানীয় সরকার সচিব থাকা অবস্থায় এস এম গোলাম ফারুক ছিলেন সিনিয়র সচিব। তিনি একধাপ নিচে নেমে একটা পদ নিলেন। অথচ পাবলিক সার্ভিস কমিশন গঠন করাই হয়েছিল শিক্ষাবিদ এবং বিশেষজ্ঞদের জন্য, যারা সরকারি চাকরিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া পরিচালনা করবেন। এরকম ঘটনা ঘটছে আজকাল হর হামেশাই।

সরকারি চাকরি থেকে অবসর নিয়ে আমলারা, বিশেষ করে সচিবরা আর বসে থাকতে চাইছেন না। তারা দেনদরবার তদবির করছেন কোনো একটা পদের জন্য। আর এখন তাদের পদের প্রধান আকর্ষণ হলো- বিশেষজ্ঞ, সুশীল সমাজ, শিক্ষাবিদ এবং সাংবাদিকদের জন্য সংরক্ষিত বিষেশায়িত পদগুলোতে।

তথ্য সচিব ছিলেন মরতুজা আহমেদ। অবসরগ্রহণের পর তাকে প্রধান তথ্য কমিশনার করা হয়েছে। অথচ তথ্য কমিশনটি গঠন করা হয়েছিল সাংবাদিকদের তথ্য অধিকার প্রাপ্তির জন্য। সাধারণত সাংবাদিকতার শিক্ষক এবং প্রবীণ সাংবাদিকদের এই পদে দেওয়ার কথা ছিল। তবে এখন এটি আমলাদের দখলে চলে গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক সিনিয়র সচিব সুরাইয়া বেগমও এখন তথ্য কমিশনের সদস্য হয়েছেন। মানবাধিকার কমিশন গঠন করা হয়েছিল মানবাধিকার লঙ্ঘন সংক্রান্ত বিষয়গুলো তদারকি করার জন্য। এটি ছিল একটি আইনজীবী এবং আইনজ্ঞদের পদ। প্রথমবারের মতো মানিবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হয়েছিলেন অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান। তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক। কিন্তু এই পদটিও এখন দখল করে নিয়েছেন আমলারা। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব নাছিমা বেগমকে এই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এভাবে সবগুলো শিক্ষাবিদ এবং বিশেষজ্ঞদের পদ ক্রমশ দখলে যাচ্ছে আমলাদের। এর আগে ব্যাংকগুলো দখল করে নিয়েছিলেন আমলারা। অধিকাংশ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের চেয়ারম্যান এখন আমলারা।

আমলাদের অবসরের পরও তারা হয় চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের চেষ্টা করছেন অথবা বিশেষায়িত কোনো সরকারি পদে যেতে চাইছেন। ফলে সরকার কাঠামোতে সুশীল সমাজ, শিক্ষাবিদ এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের ভূমিকা ক্রমেই হ্রাস পাচ্ছে। আর আমলানির্ভর হয়ে পড়ছে পুরো রাষ্ট্রযন্ত্র।

সুত্র: বাংলা ইনসাইডার

Comments

comments