ফের বাংলাদেশে ঢুকে মাছ শিকার, ১১ ভারতীয় জেলে আটক

বাগেরহাট প্রতিনিধি:
বাংলাদেশের জলসীমায় অনুপ্রবেশ করে বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকার করায় এবার ১১ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে নৌবাহিনী। এ নিয়ে দুই সপ্তাহের ব্যবধানে ৪৯ ভারতীয় জেলেকে আটক করা হলো।

সোমবার ভোরে মোংলা বন্দরের অদূরে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে এফবি হীরা পার্বতী নামক একটি ট্রলারসহ ভারতীয় ১১ জেলেকে আটক করা হয়।

আটককৃত জেলেরা হলেন- সিদ্বিরশর গানা, শ্রী কৃষ্ণ , দিপক বাড়ই, রামকৃষ্ণ দাস, হরিপ্রধান, সুভাষ পাল, মাইনু হানবেগ, পিন্টু মন্ডল, জন্টু মৃধা, প্রদীপ পাল ও গোকুল দলপতি।

আটকের পর ভারতীয় জেলেদের মোংলা থানা পুলিশে হস্তান্তর করলে বিকেলে বাগেরহাট আদালতে পাঠানো হয়। আদালত তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পুলিশ জানায়, আটক জেলেদের বাড়ি ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগনা জেলায়। তাদের বিরুদ্ধে সামুদ্রিক মৎস্য অধ্যাদেশ ১৯৮৩-এর-২২ ধারায় মামলা দায়েরের পর আদালদের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। মোংলার দিগরাজ নৌঘাঁটির পিওআর এম ইমান আলী বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

মোংলা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবুল হোসেন বলেন, অবৈধভাবে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ এবং সমুদ্রসীমা লঙ্ঘন করে মাছ শিকারের সময় ভারতীয় ১১ জেলে আটক করে নৌবাহিনী। এর আগে ১ অক্টোবর ১৫ জন এবং ৪ অক্টোবর ২৩ জন ভারতীয় জেলেকে আটক করা হয়। ভারতীয় ওসব জেলে এখন বাগেরহাট কারাগারে রয়েছে।

Comments

comments