করোনায় আম নিয়ে করণীয়

নিউজ ডেস্কঃ

দেশের বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে উৎপাদিত আম নিয়ে কি করণীয় এ নিয়ে সবুজ বালাদেশ24.কমের কৃষি সংযোগ অনুষ্ঠানে এক বিশেষজ্ঞ আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুর রহিম, উদ্যানতত্ত্ব বিভাগ; প্রফেসর ড. মোহাম্মদ গোলজারুল আজিজ, ফুড টেকনোলজি ও গ্রামীণ শিল্প বিভাগ; প্রফেসর ড. মোঃ আবুল মঞ্জুর খান, কীটতত্ত্ব বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

আলোচনায় যে মূল বিষয়গুলো উঠে এসেছে-

করোনা পরিস্থিতিতে আম বাজারজাত করণে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপণা জরুরী। এই আপৎকালীন সময়ে আম পরিবহনে ট্রেন, বিআরটিসি’র পরিবহন এবং প্রয়োজনে বিশেষ পরিবহন ব্যবস্থা করে সঠিক সময়ে আম ক্রেতার নাগালে পৌঁছাতে হবে। প্রয়োজনে কুল চেইন ব্যবহার করা যেতে পারে। একেক  অঞ্চলের একেক জাতের আম একেক সময় পেঁকে থাকে। তাই সঠিক তথ্য ও সুষ্ঠু পরিবহন ব্যবস্থা গ্রহণ করে আমকে বাজারজাত করা যেতে পারে।

আমচাষীরা সহজলভ্য উপায়ে নিজের বাড়িতে সল্প সময়ের জন্য আম সংরক্ষণ করতে পারেন। এছাড়া আম উত্তোলন একসঙ্গে না করে এগিয়ে নিয়ে আসা বা দেরী করা যেতে পারে স্বাস্থ্যসম্মত বৈজ্ঞানিক উপায়ে।

আম প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিয়ে একসাথে বসে এই করোনা পরিস্থিতিতে বেশী করে আম কেনার তাগিদ দিতে হবে। প্রয়োজনে তাদের বিশেষ প্রণোদনা দেয়া যেতে পারে। আমাদের এগ্রো প্রসেসিং এর দিকে যেতে হবে। যেসব দেশ তাদের উপাদিত আমের অধিকাংশই প্রক্রিয়াজাত করে চাহিদা মোতাবেক বিভিন পণ্য  তৈরি করে বাজারজাত করছে সেসব দেশে থেকে আমরা শিক্ষা নিতে পারি।

ফুড বা এগ্রো প্রসেসিং এর জন্য আলাদা মন্ত্রনালয় করা জরুরী হয়ে পড়ছে। এছাড়া ক্ষুদ্র ও মাঝারি আমের কুটির শিল্প গড়ে তোলা যেতে পারে।

রপ্তানী করার ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

আমচাষী বা ব্যবসায়ীদের এই আপৎকালীন সময়ে প্রণোদনা দেয়া উচিৎ বলেও বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।

এসব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা দেখুন ডিভিও টিতে।

 

  •  
  •  
  •  
  •