৪ কোটি টন ভুট্টা উৎপাদন বাড়তে পারে: আইজিসি

নিউজ ডেস্কঃ

করোনা মহামারীর মধ্যেও বৈশ্বিক ভুট্টা উৎপাদনে আশার কথা শুনিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল গ্রেইন কাউন্সিল (আইজিসি)। প্রতিষ্ঠানটির সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ২০২০-২১ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে কৃষিপণ্যটির উৎপাদন আগের মৌসুমের তুলনায় প্রায় চার কোটি টন বাড়তে পারে। যদিও ২০২০-২১ মৌসুম নিয়ে আইজিসির আগের প্রাক্কলনের তুলনায় সর্বশেষ পূর্বাভাসে ভুট্টা উৎপাদনের পরিমাণ কমিয়ে আনা হয়েছে। একই মৌসুমে ভুট্টার বৈশ্বিক চাহিদা বাড়তে পারে প্রায় ৩ কোটি ১০ লাখ টন। খবর ওয়ার্ল্ডগ্রেইনডটকম ও সাকসেসফুল ফার্মিং।

লন্ডনভিত্তিক আইজিসির সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ২০২০-২১ মৌসুমে বৈশ্বিক ভুট্টা উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ১১৬ কোটি টনে। ২০১৯-২০ মৌসুমে কৃষিপণ্যটির সম্মিলিত বৈশ্বিক উৎপাদনের পরিমাণ ১১২ কোটি ১০ লাখ টন। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে ভুট্টার বৈশ্বিক উৎপাদন বাড়তে পারে ৩ কোটি ৯০ লাখ টন।

এর আগে ২০১৮-১৯ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে সব মিলিয়ে ১১২ কোটি ৯০ লাখ টন ভুট্টা উৎপাদন হয়েছিল বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে আইজিসি। আর ২০১৭-১৮ মৌসুমে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক উৎপাদনের পরিমাণ ছিল ১০৯ কোটি ১০ লাখ টন। অর্থাৎ চার মৌসুমের মধ্যে শুধু ২০১৯-২০ মৌসুমে ভুট্টার বৈশ্বিক উৎপাদন কমে এসেছে। এ মন্দা ভাব কাটিয়ে ২০২০-২১ মৌসুমে ঘুরে দাঁড়াতে যাচ্ছে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক উৎপাদন।

যদিও আইজিসির আগের প্রতিবেদনে ২০২০-২১ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে ১১৬ কোটি ৬০ লাখ টন ভুট্টা উৎপাদনের প্রাক্কলন করা হয়েছিল। সেই হিসাবে সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক উৎপাদন প্রাক্কলন ৬০ লাখ টন কমিয়ে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।

এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ভুট্টা উৎপাদন অনেকাংশে কমতে পারে বলে জানিয়েছে আইজিসি। প্রতিষ্ঠানটির সাম্প্রতিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২০-২১ মৌসুমে যুক্তরাষ্ট্রে ভুট্টা উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ৩৭ কোটি ৬৫ লাখ টনে। আগের প্রতিবেদনে প্রতিষ্ঠানটি ২০২০-২১ মৌসুমে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ৩৮ কোটি ৪২ লাখ টন ভুট্টা উৎপাদনের প্রাক্কলন করেছিল। সেই হিসাবে সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে যুক্তরাষ্ট্রে কৃষিপণ্যটির উৎপাদন প্রাক্কলন ৭৭ লাখ টন কমিয়ে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।

মার্কিন কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে সব মিলিয়ে ৪০ কোটি ৬২ লাখ ৯২ হাজার টন ভুট্টা উৎপাদন হতে পারে, যা আগের বছরের তুলনায় ১৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ বেশি।

এদিকে আইজিসির সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ২০২০-২১ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে ভুট্টার চাহিদা দাঁড়াতে পারে ১১৭ কোটি ৬০ লাখ টনে। ২০১৯-২০ মৌসুমে কৃষিপণ্যটির সম্মিলিত বৈশ্বিক চাহিদার পরিমাণ ১১৪ কোটি ৫০ লাখ টন। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে ভুট্টার বৈশ্বিক চাহিদা বাড়তে পারে ৩ কোটি ১০ লাখ টন।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮-১৯ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে ভুট্টার চাহিদা ছিল সব মিলিয়ে ১১৪ কোটি ৮০ লাখ টন। আর ২০১৭-১৮ মৌসুমে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক চাহিদার পরিমাণ ছিল ১১১ কোটি ৮০ লাখ টন। অর্থাৎ চার মৌসুমের মধ্যে শুধু ২০১৯-২০ মৌসুমে ভুট্টার বৈশ্বিক চাহিদা কমে এসেছিল। এ মন্দা ভাব কাটিয়ে ২০২০-২১ মৌসুমে ঘুরে দাঁড়াতে যাচ্ছে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক চাহিদা।

যদিও আইজিসির আগের প্রতিবেদনে ২০২০-২১ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে ১১৭ কোটি ৮০ লাখ টন ভুট্টার চাহিদা থাকতে পারে বলে প্রাক্কলন করা হয়েছিল। সেই হিসাবে সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক চাহিদা প্রাক্কলন ২০ লাখ টন কমিয়ে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।

আইজিসির এসব পূর্বাভাস বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ২০২০-২১ মৌসুমে বিশ্বজুড়ে ভুট্টা উৎপাদন হতে পারে ১১৬ কোটি টন। এর বিপরীতে কৃষিপণ্যটির বৈশ্বিক চাহিদা দাঁড়াতে পারে ১১৭ কোটি ৬০ লাখ টনে। সেই হিসাবে ২০২০-২১ মৌসুমে বিশ্বে ভুট্টার উৎপাদন ও চাহিদায় সম্ভাব্য ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ১ কোটি ৬০ লাখ টনে, যা আগের মৌসুমের মজুদ দিয়ে পূরণের চেষ্টা করা হবে। উৎপাদন ও চাহিদায় সম্ভাব্য এ ঘাটতি আগামী দিনগুলোয় আন্তর্জাতিক বাজারে কৃষিপণ্যটির দাম বাড়িয়ে দিতে পারে।

  •  
  •  
  •  
  •