বাকৃবিতে ‘গ্রামীণ জীবনমানের উন্নয়নে প্রচলিত কৃষি থেকে বাণিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তর’ বিষয়ক কর্মশালা

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) ‘গ্রামীণ জীবনমানের উন্নয়নে গতানুগতিক কৃষি থেকে বাণিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তর’ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে পরিচালিত প্রকল্পের এই কর্মশালা শনিবার (১৬ জানুয়ারি) কৃষি সম্প্রসারণ ও শিক্ষা বিভাগে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এই প্রকল্পের কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) অংশের মূখ্য গবেষক ড. মো. আব্দুল আওয়াল।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রকল্পের প্রধান গবেষক ও সমন্বয়ক প্রফেসর ড. মো. জুলফিকার রহমান।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় রিসার্চ সিস্টেমের (বাউরেস) পরিচালক প্রফেসর ড. মো. আবু হাদী নূর আলী খানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ড. জীবন কৃষ্ণ বিশ্বাস।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, আমাদের কৃষির অধিকতর উন্নয়নে বিভিন্ন সেক্টরের সমন্বয় প্রয়োজন। গতানুগতিক কৃষি থেকে বাণিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তরের ক্ষেত্রে এলাকা ও মৌসুম ভিত্তিক বিভিন্ন ফসলের নির্বাচন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কৃষির এই রূপান্তরে পরিবেশের উপর যেন প্রভাব না পড়ে সে বিষয়ে খেয়াল রাখার পরামর্শ দেন ড. কৃষ্ণ।

অনুষ্ঠানে সভাপতি প্রফেসর ড. আবু হাদী নূর আলী খান বলেন, গতানুগতিক কৃষি থেকে বাণিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তর দেশের বিভিন্ন জায়গায় হচ্ছে। এ প্রকল্প থেকে কৃষি ও কৃষকের কল্যাণে নতুন কিছু ধারণা বেরিয়ে আসবে এই আশা ব্যক্ত করেন  পাশাপাশি গবেষণা প্রকল্পের ফলাফল মাঠ পর্যায়ে সম্প্রসারণ এবং প্রচার করতে আহবান জানান।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন প্রকল্পের সহযোগী গবেষক প্রফেসর ড. মো. হাম্মাদুর রহমান।

প্রকল্পের প্রধান গবেষক ও সহযোগী গবেষক আশা প্রকাশ করে বলেন, গ্রামীণ জীবনযাত্রার মান্নোয়নে আমাদের প্রকল্প একটি মডেল হিসেবে কাজ করবে এবং গবেষণা প্রকল্পের ফলাফল কৃষির বাণিজ্যিক রূপান্তরে পলিসি মেকার ও স্টেকহোল্ডারদের সহায়ক ভুমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানে প্রকল্পটির সহযোগী প্রতিষ্ঠান কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) ও সেবা সংস্থা এবং কৃষি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদের গবেষকগণ উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কৃষি সম্প্রসারণ শিক্ষা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন।

  •  
  •  
  •  
  •