প্রান্তিক কৃষকদের ধান ও আলু চাষাবাদের উপর সপ্তাহব্যাপি প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিনিধি:
রানীপুকুর ও দুর্গাপুর ইউনিয়নের অর্ন্তগত, তাজনগর, নয়ানী ফরিদপুর ও মিঠাপুকুর গ্রামের প্রান্তিক চাষিদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য সপ্তাহ (১৬ই নভেম্বর থেকে ২৩ শে নভেম্বর ব্যাপি হাতে কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

উক্ত প্রশিক্ষণটি উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ, মিঠাপুকুর এডিপি দায়িত্ব প্রাপ্ত প্রোগ্রাম অফিসার মিঃ ব্যাটেল সরকার ও কৃষিবিদ কাজল কুমার দে এবং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জনাব মোঃ খোরশেদ আলম।

বক্তারা বলেন, “বাংলাদেশ একটি কৃষি প্রধান দেশ যার অর্থনীতি সম্পূর্ণ কৃষির উপর নির্ভরশীল। তাই কৃষকদের কৃষি পণ্য লাভজনক ও কম খরচে উৎপাদন করা এবং এ আয় থেকে পরিবারের ভরনপোষণ করা খুবই গুরুত্ব পূর্ণ। সঠিক ভাবে চাষাবাদ করলে আমরা কৃষিজাত দ্রব্য থেকে অধিক মুনাফা অর্জন করতে সক্ষম হব”।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ মিঠাপুকুর এডিপি প্রান্তিক কৃষকদের দক্ষতা প্রশিক্ষণ আয়োজনকে সময়োপযোগী হিসাবে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর এর পক্ষ বলা হয় এবং বিভাগ থেকে প্রয়োজনীয় সকল বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান এর আশ্বাস প্রদান করা হয়। আলোচনা শেষে সপ্তাহ ব্যাপি প্রশিক্ষণ কর্মশালার আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করেন ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বৃন্ধ ।

এখানে ৩০০ টি পরিবার যারা দরিদ্র ও অতিদরিদ্র সীমার মধ্যে বসবাস করছেন ওয়ার্ল্ড ভিশন মিঠাপুকুর এডিপি সরাসরি তাদের কে প্রশিক্ষণ এর আওতাভুক্ত করেছে। যার মাধ্যমে ৭৫ জন আলু চাষি এবং ২২৫ জন ধান চাষি উন্নত চাষাবাদ পদ্ধতি সম্পর্কে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন।

সপ্তাহব্যাপি প্রশিক্ষণটি সরাসরি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে পরিচালিত করা হচ্ছে, এখানে উপজেলা কৃষি বিভাগ তাত্বিক ও হাতে কলমে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কৃষকদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: