ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ, হুমকির মুখে বিশ্ব অর্থনীতি

এস এম আবু সামা আল ফারুকী:
করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতে এক ভয়াল রূপ ধারন করেছে। বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ৩ লক্ষ নতুন রোগী শনাক্ত হচ্ছে এবং ৩ হাজার মানুষ প্রতিদিন মৃত্যুবরণ করছে। সম্প্রতি মৃত্যু সংখ্যা ২ লাখের মাইলফলক স্পর্শ করেছে যা পুরো পৃথিবীর করোনাজনিত মৃত্যুর ১৬ ভাগের এক ভাগ। তবে সঠিক তথ্য সংগ্রহ ও প্রকাশে ব্যর্থতার কারণে বাস্তবে এ সংখ্যা অনেক বেশি বলে ধারনা করা হচ্ছে। সাম্প্রতিককালে আয়োজিত ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠান এই পুনর্বিস্তারের কারণ বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

১৪০ কোটি জনসংখ্যার এই দেশ পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার প্রায় ছয় ভাগের এক ভাগ মানুষের বাসস্থান। এখানে এমন দুরবস্থা পৃথিবীর অর্থনৈতিক মন্দার কারণ হবে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

বিশ্ব অর্থনীতিতে অবদানের দিক দিয়ে ভারতের অবস্থান পঞ্চম। এ কারনে বিশ্ব অর্থনীতিতে ভারতের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে। ২০২০ এ বিশ্ব অর্থনীতি ৪ শতাংশ হ্রাস পায় এবং সে সময়ে ভারতের অর্থনীতি ১০ শতাংশ হ্রাস পায়। বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারতের জিডিপি ১.৫ শতাংশে নেমে আসতে পারে বলে ধারনা করছেন অর্থনীতিবিদ সোনাল বার্মা।

বর্তমানে ভারতের সাথে অন্যান্য দেশের ভ্রমন এবং অন্যান্য নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে। এতে বিমান এবং অন্যান্য বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষতির মুখে পড়ছে।

অপরদিকে ভারতের ঔষধ শিল্প হল বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম এবং অর্থনৈতিক বিচারে এগারো তম। বর্তমান বিশ্বের ৩.৫ শতাংশ ঔষধ রপ্তানি হয় ভারত থেকে। ৬৪ টি নিম্ন আয়ের দেশে ৫০ লক্ষ ডোজ করোনাভ্যাক্সিন দেয়ার কথা ভারতের। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে যোগাযোগ ও রপ্তানি বন্ধ থাকায় এই নিম্ন আয়ের দেশগুলো ভ্যাক্সিন পাবে কিনা তা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বর্তমানে উদ্ভুত এই পরিস্থিতিতে সহায়তা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও জার্মানি ভারতে সাহায্য উপকরণ পাঠিয়েছে। প্রয়োজনের তুলনায় কম হলেও একে আন্তর্জাতিক সম্প্রীতির প্রতীক হিসেবে দেখা হচ্ছে। ভারত সরকার দ্রুত বর্তমান অবস্থা থেকে বের হয়ে আসতে না পারলে তা বিশ্ব স্বাস্থ্য ও অর্থনীতি উভয়ের জন্য হুমকির কারন হবে।

তথ্য সূত্রঃ দ্য কনভারসেশন

  •  
  •  
  •  
  •  

Tags: , ,