বাকৃবি মেডিসিন বিভাগের নতুন বিভাগীয় প্রধান নিযুক্ত

নিউজ ডেস্কঃ

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের নতুন বিভাগীয় প্রধান নিযুক্ত হয়েছেন ড. মোঃ আমিনুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকালে মেডিসিন বিভাগের এক সভার মাধ্যমে বিদায়ী বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুব আলম এর কাছ থেকে পরবর্তী দুই বছরের জন্য ড. মোঃ আমিনুল ইসলাম দায়িত্বভার গ্রহন করেন।

ড. ইসলাম ২০১০ সালের জানুয়ারী মাসে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগে লেকচারার হিসাবে শিক্ষকতা শুরু করেন এবং বর্তমানে সহযোগী প্রফেসর হিসাবে কর্মরত আছেন।

ড. ইসলাম বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অনুষদ থেকে ডি.ভি.এম. ডিগ্রি এবং পরবর্তীতে মেডিসিন বিভাগ থেকে এম.এস. ইন মেডিসিন ডিগ্রি লাভ করেন। ডি.ভি.এম. এবং এম.এস. ডিগ্রিতে সর্বোচ্চ মেধার স্বীকৃতি স্বরূপ উভয় ক্ষেত্রে স্বর্ণ পদক লাভ করেন। তারপর বেলজিয়াম এর ইনস্টিটিউট অফ ট্রপিকাল মেডিসিন থেকে এম.এস. ইন ট্রপিক্যাল এনিম্যাল হেলথ ডিগ্রি অর্জন করেন।

তিনি জার্মানীর বন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘মাগনা কাম লাউডে (ভেরি গুড)’ গ্রেড সহকারে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। পিএইচডি গবেষণা থেকে বেস্ট পাবলিকেশনের জন্য বন বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রিকালচার ফ্যাকাল্টি কর্তৃক ‘ফ্যাকাল্টি প্রাইজ-২০১৭’ এ ভূষিত হন।

এছাড়াও বন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ‘প্রমোশন প্লাস’ নামে পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা কোর্স সম্পন্ন করেন। সম্প্রতি তিনি জাপানের তোহোকু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জে.এস.পি.এস. ফেলোশিপ এর মাধ্যমে দুই বছরের পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা সম্পন্ন করেন।

ড. মোঃ আমিনুল ইসলাম ক্রমাগত নিজেকে একজন আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষক, গবেষক এবং প্রাণি চিকিৎসক হিসাবে তৈরি করে চলেছেন। বিশ্বের উন্নত দেশের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একাডেমিক ডিগ্রি অর্জনের পাশাপাশি বহুজাতিক যৌথ গবেষণা কার্যক্রম এর সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন।

ড. ইসলাম এ পর্যন্ত তিনি মোট ৪৭ গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশ করেছেন যেখানে ৩৩ টি প্রবন্ধই স্কোপাস-ইন্ডেক্সেড ইমপ্যাক্ট ফ্যাক্টর সংবলিত আন্তর্জাতিক জার্নাল এ প্রকাশিত হয়েছে। তার গবেষণা প্রবন্ধের কিউমুলেটিভ ইমপ্যাক্ট ফ্যাক্টর ১১০ এর বেশি, সাইটেশন সংখ্যা ৫২০ এর বেশি এবং এইচ-ইনডেক্স ১৩।

ড. মোঃ আমিনুল ইসলামের গবেষণার মূল বিষয় হচ্ছে উপকারি ব্যাকটেরিয়া দিয়ে মানুষ ও প্রাণীদেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো। কেমিকাল ড্রাগের পরিবর্তে কার্যকরি প্রোবায়োটিকস ব্যবহার করে রোগের চিকিৎসা এবং স্বাস্থ্য ব্যাবস্থাপনা করা যাতে করে এন্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স এর ভয়াবহতা থেকে মানুষ ও প্রাণীকূলকে রক্ষা করা যায় এবং সেইসাথে মানুষের জন্য নিরাপদ খাদ্য (মাংস, ডিম ও দুধ) উৎপাদন করা যায়।

এছাড়া ড. ইসলাম একজন অভিজ্ঞ ভেটেরিনারিয়ান হিসাবে নিয়মিত প্রাণীকুলের চিকিৎসা সেবা ও প্রাণিস্বাস্থ্য ব্যাবস্থাপনা সম্পর্কে বিশেষজ্ঞ পরামর্শ প্রদান করে চলেছেন।

বিভাগীয় প্রধান হিসাবে কর্মপন্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে ড. ইসলাম করোনা কালীন স্থবিরতা কাটিয়ে মেডিসিন বিভাগের শিক্ষা, গবেষণা ও ভেটেরিনারি ক্লিনিকাল সার্ভিস কে আরো গতিশীল ও যুগোপযোগী করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

দায়িত্বভার গ্রহণ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভেটেরিনারি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ মকবুল হোসেন, প্রফেসর ড. মোঃ আবু হাদী নূর আলী খান, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহ আরও অনেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3