রাবিতে শিক্ষক নিয়োগে নতুন নীতিমালা

রাবি সংবাদদাতা:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ নতুন নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। নতুন নীতিমালায় অনুযায়ী এখন থেকে শিক্ষা জীবনে চারটিতেই প্রথম শ্রেণী না থাকলে কোনো শিক্ষার্থীই আর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন না।

শনিবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ৪৬২তম সভায় এ নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়। রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক (এসএসসি-এইচএসসি) এবং স্নাতক-স্নাতকোত্তর-এ যদি কোনো শিক্ষার্থীর প্রথম শ্রেণী না থাকে, নতুন নীতিমালায় অনুযায়ী সে শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক পদের জন্য আবেদন করতে পারবে না। কিন্তু আগের নীতিমালা অনুযায়ী যেকোনো দুটিতে প্রথম শ্রেণী থাকলে আগে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হওয়ার জন্য শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারতেন।

নতুন নীতিমালায় বলা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক পদের জন্য আবেদনকারী শিক্ষার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে (এসএসসি ও এইচএসসি) ৫ পয়েন্টের মধ্যে ৪.৫ পয়েন্ট এবং স্নাতক-স্নাতকোত্তর (অনার্স ও মার্স্টাস) ৪ পয়েন্টের মধ্যে ৩.৫ পয়েন্ট থাকতে হবে। এর নিচে কোনো শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবে না। এছাড়াও কোনো বিভাগে যদি একাধিক শিক্ষার্থীর স্নাতক-স্নাতকোত্তরে (অনার্স ও মার্স্টাস) ৩.৫ পয়েন্ট থাকে তাহলে মেধাক্রম অনুযায়ী প্রথম থেকে সপ্তম স্থান পর্যন্ত শিক্ষার্থীরাই কেবল আবেদন করতে পারবে।

আগামীতে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধাবী শিক্ষার্থীরা নিজেদের জায়গা করে দেওয়ার লক্ষ্যেই বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ এ নতুন নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রশাসনের এই উদ্দোগকে যুগান্তরকারী সিদ্ধান্ত উল্লেখ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, আমরা প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানায়। এ সিদ্ধান্তের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে যেমন দূর্নীতি কমবে, তেমনি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধাবী শিক্ষার্থীরা সুযোগ পাবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3