দীঘিকে দুই পয়সার মেয়ে বললেন পরিচালক ঝন্টু!

dighi

বিনোদন ডেস্কঃ সম্প্রতি ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমাটি নিয়ে বেশ জল ঘোলাটে হয়েছে। এর পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু ও অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘির মধ্যে কিছুদিন ধরে চলছে বাকযুদ্ধ। সিনেমাটি ১২ মার্চ সিনেমা হলে মুক্তি পাবে।

সিনেমাটির ট্রেলার নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনা হয়। ছবিটি নিয়ে ট্রলের স্বীকার হন অভিনেত্রী দীঘি। পরে তাঁর মন্তব্যকে ঘিরে সমালোচনা বাড়তে থাকে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছবিটির প্রযোজক ও পরিচালক দীঘির নামে পৃথক দুটি মামলার কথা জানিয়েছিলেন গতকাল।

ঝন্টু জানিয়েছিলেন, দীঘির বিরুদ্ধে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করেছেন প্রযোজক সিমি ইসলাম। দীঘি, দীঘির বাবা সুব্রত ও মামার নামে মানহানির মামলা করেছেন নির্মাতা।

দীঘির বিরুদ্ধে মামলার পর এবার কড়া ভাষায় তার সমালোচনা করলেন নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে দীঘিকে ‘দুই পয়সার মেয়ে’ এবং ‘বাজে মনোবৃত্তির মেয়ে’ বলেন ঝন্টু।

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দেওয়া সাক্ষাৎকারে ঝন্টু বলেন, ওর কথা শুনে মনে হয় মেয়েটা মোটামুটি লেখাপড়া করছে। সুন্দর সুন্দর ইংরেজি শব্দগুলো ব্যবহার করে। জ্ঞান নেই তার, জ্ঞান থাকলে নিজের ছবি চলবে না এই কথা কেউ বলে!

ঝন্টু বলেন, ওই বক্তব্য দেওয়ার পর আমার সঙ্গে আর দীঘির কথা হয়নি। আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে নাই।

উপস্থাপক প্রশ্ন করেন, আপনি কি দীঘিকে জিজ্ঞাসা করতে পারতেন না, কেন এমন হলো? ঝন্টু বলেন, কেন করব আমি? সে আমাকে জিজ্ঞাসা করে বলেছে? আমি কেন জিজ্ঞাসা করব? দুই পয়সার একটা মেয়ে।

নিজের সিনেমার নায়িকাকে ‘দুই পয়সার মেয়ে’ বলা কতটা সমীচীন উপস্থাপকের এমন প্রশ্নের উত্তরে ঝন্টু বলেন, দুই পয়সার মেয়ে না হলে এমন কথা বলতে পারে না। চলচ্চিত্রের জন্য সে দুই পয়সার। লেট মি ফিনিস, দুই পয়সার মেয়ে বলছি এই জন্য, চলচ্চিত্রের জন্য সে দুই পয়সার। নিজের চলচ্চিত্রকে চলবে না যে বলে, সে দুই পয়সারও না। সে একটা বাজে মনোবৃত্তির মেয়ে। নয়তো এ কথা সে কী করে বলে? ওর নিজের ছবি। কেন বলবে?

  •  
  •  
  •  
  •