চীনের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্রের

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

করোনা সংক্রমনে চীনকে দায়ী করে দেশটির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।  যেখানে করোনা এখনও  সারাবিশ্বকে টালমাটাল রেখেছে সেখানে ট্রাম্পের নীতি বিশ্বকে কোন দিকে ঠেলে দিচ্ছে তা নিয়ে নতুন এক আশংকা দেখা দিতে পারে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বহুবার এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের জন্য চীনকে দায়ী করে আসছেন। তার দাবি সারাবিশ্বে চীনের কারণেই এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

সে কারণে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে যে সম্পর্ক আছে তা পুরোপুরি ভেঙ্গে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এরই অংশ হিসেবে চীনের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিল যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজার থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে চীনের বহু কোম্পানিকে। মার্কিন সিনেট জানিয়েছে, চীনের বহু কোম্পানিকে মার্কিন শেয়ারবাজার থেকে নিষিদ্ধ করে দেওয়ার বিল পাস করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের এমন সিদ্ধান্তের কারণে ৩৫ লাখ কোটি টাকা ক্ষতিগ্রস্ত হবে চীন।

যে কোম্পানি গুলিকে শেয়ার বাজার থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে সেই তালিকায় রয়েছে বহু নামিদামি কোম্পানি। এর মধ্যে আলিবাবা, বাইডুর মতো বড়ো কোম্পানির নামও রয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে চীন থেকে ভারতমুখী হচ্ছে বিনিয়োগকারীরা। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার ডাক দিয়েছেন। তিনি বিদেশি পণ্য বর্জন করে স্বদেশী পণ্য কেনার জন্য দেশের জনগণকে আহ্বান জানিয়েছেন।

এই আত্মনির্ভর প্রকল্পের ঘোষণা দেওয়ার পর থেকেই চীন থেকে অধিকাংশ কোম্পানি তাদের ব্যবসা গুটিয়ে ভারতে বিনিয়োগ করতে চাইছে। এর মধ্যেই চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের জেরে বড় ধাক্কা খেল চীন।

  •  
  •  
  •  
  •