৭ বছরে সর্বোচ্চে রুপার দাম

নিউজ ডেস্কঃ

চলমান করোনা মহামারীতে অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তা ঘিরে ধরেছে বিশ্বকে। এ পরিস্থিতিতে চাহিদা বাড়ায় স্বর্ণের দাম বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। একই পরিস্থিতি রুপার বাজারেও। চলতি সপ্তাহে রুপার দাম প্রায় ১৫ শতাংশ বেড়ে সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চে উঠেছে।

জানা গেছে, চলতি সপ্তাহে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি আউন্স রুপার গড় দাম দাঁড়িয়েছে ২২ ডলার, যেখানে গত মার্চে ধাতুটির আউন্সপ্রতি গড় দাম ছিল ১১ ডলার ৬২ সেন্ট।

মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের স্বল্প সুদহার, বিনিয়োগ পণ্য হিসেবে চাহিদা বৃদ্ধি, উত্তোলন হ্রাস ও শিল্প খাতে ব্যবহার বৃদ্ধি মূল্যবান ধাতুটির দাম বাড়াতে মূল প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে।

চীনসহ বেশ কয়েকটি দেশে করোনা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। এসব দেশে লকডাউন শিথিল করে আনা হয়েছে। ব্যবসা-বাণিজ্য স্বাভাবিকে ফিরতে শুরু করেছে। এতে বিভিন্ন শিল্প খাতে যেমন সোলার প্যানেল ও ইলেকট্রনিকসে রুপার চাহিদা বাড়তে শুরু করেছে, যা পণ্যটির দাম বাড়াতে প্রভাব ফেলছে।

করোনা ভাইরাসের বিধিনিষেধের জেরে বিভিন্ন দেশে অন্যান্য খনিজ ধাতুর মতো রুপার উত্তোলনও কমছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক কনসাল্ট্যান্সি মেটাল ফোকাসের পূর্বাভাস অনুযায়ী, চলতি বছর মূল্যবান পণ্যটির বৈশ্বিক উত্তোলন আগের বছরের তুলনায় ৭ শতাংশ কমে যেতে পারে। ফলে চাহিদার ওপর চাপের আশঙ্কায় পণ্যটির মূল্য বাড়তে শুরু করেছে।

আগামীতে রুপার দাম আরো বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

  •  
  •  
  •  
  •