বৈশ্বিক উদ্যোগে ১৫৬ দেশ

নিউজ ডেস্কঃ

সবার জন্য করোনার টিকা নিশ্চিতকরণের বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সে থাকতে সম্মত হয়েছে বিশ্বের ১৫৬টি দেশ। এর মধ্যে ৬৪টি ধনী দেশ আছে, যারা কভিড-১৯ টিকা উদ্ভাবিত হলে নিজস্ব অর্থায়নে নিতে পারবে। বাকি ৯২টি নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশের ক্ষেত্রে টিকা কেনার জন্য সহায়তার প্রয়োজন হবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) গত মাসে জানায়, তাদের কোভ্যাক্স উদ্যোগে অংশ নিতে বিশ্বের ১৭০টি দেশ আলোচনা করছে। এই উদ্যোগের সঙ্গে আছে কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস ইনোভেশন (সিইপিআই) ও দাতব্য সংস্থা গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (গাভি)। এরপর গত সোমবার ডাব্লিউএইচওর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতে জানানো হয়, সর্বজনীন টিকার এ উদ্যোগে অংশ নিতে ১৫৬টি দেশ সম্মত হয়েছে, যার মধ্যে বাংলাদেশও আছে। এই দেশগুলো বৈশ্বিক জনসংখ্যার ৫৬ শতাংশ প্রতিনিধিত্ব করছে।

কোভ্যাক্স উদ্যোগের সদস্য রাষ্ট্রগুলো জনসংখ্যার ৩ শতাংশের জন্য টিকা পাবে। কার্যকর ও নিরাপদ টিকা পাওয়া মাত্রই এ সুবিধা পাবে দেশগুলো। এসব টিকা করোনার লড়াইয়ে সামনের সারিতে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীসহ সামাজিক বিভিন্ন সেবার সঙ্গে জড়িতদের মধ্যে বিতরণ করা হবে। প্রতিটি দেশের ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর সুরক্ষায় সময়ের সঙ্গে সঙ্গে টিকা সরবরাহের এ হার ২০ শতাংশে উন্নীত করা হবে। এই প্রকল্পের আওতায় ২০২১ সাল শেষ হওয়ার আগেই বিশ্বজুড়ে ২০০ কোটি ডোজ টিকা বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের টিকা উদ্ভাবনে গবেষণা, টিকা ক্রয় এবং তা সমভাবে বিতরণে কোভ্যাক্স উদ্যোগে বিশ্বের ধনী দেশগুলোর পাশাপাশি উন্নয়নশীল দেশগুলোর অংশীদারি আছে। বিভিন্ন দেশের সরকার, টিকা প্রস্তুতকারক, বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তি এখন পর্যন্ত কভিড-১৯ টিকার গবেষণা ও উন্নয়নে ১৪০ কোটি ডলার দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

গত সোমবার জেনেভায় কোভ্যাক্স উদ্যোগে ১৫৬ দেশের সম্মতি জ্ঞাপনের খবর জানিয়ে ডাব্লিউএইচও মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রিয়েসাস বলেছেন, কোভ্যাক্সই এখন করোনার সর্বজনীন টিকার সবচেয়ে বড় উদ্যোগ, যেখানে সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা জনগোষ্ঠীর গুরুত্ব প্রাধান্য পাচ্ছে। এই প্রকল্প সব দেশের কিছু মানুষের টিকা পাওয়া নিশ্চিত করবে, কিছু দেশের সব মানুষের নয়।

তিনি আরো বলেন, ‘কোভ্যাক্স সুবিধা কোনো দাতব্য বিষয় নয়, এটি প্রতিটি দেশের সর্বোচ্চ আগ্রহের বিষয়। আমরা একসঙ্গে বাঁচব বা একসঙ্গে মরব।’

চলমান করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে ‘ভ্যাকসিন ন্যাশনালিজমের’ ক্রমবর্ধমান হুমকি মোকাবেলার লক্ষ্যে কোভ্যাক্স উদ্যোগে অংশ নেওয়া উচ্চ আয়ের ৬৪টি দেশের মধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশ এবং নরওয়ে ও আইসল্যান্ড আছে। সামনে আরো ৩৮টি দেশ এই দলে যুক্ত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সূত্র : ডাব্লিউএইচও, গার্ডিয়ান।

  •  
  •  
  •  
  •