৮৯ দশমিক ৩ শতাংশ কার্যকর নোভাভ্যাক্সের টিকা

নিউজ ডেস্কঃ

করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষা দিতে নোভাভ্যাক্সের টিকা ৮৯ দশমিক ৩ শতাংশ কার্যকর। যুক্তরাজ্যে বড় পরিসরে চালানো এক ট্রায়ালে টিকাটির এই কার্যকারিতার প্রমাণ হয়েছে। সেই সঙ্গে এই টিকা যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন স্ট্রেইন প্রতিরোধেও কার্যকর বলে নোভাভ্যাক্সের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন নোভাভ্যাক্সের টিকার এই সুসংবাদ জানিয়ে বলেছেন, এখন যুক্তরাজ্যের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা টিকাটি পরীক্ষা করবে।

যুক্তরাজ্য ইতিমধ্যে টিকাটির ৬০ মিলিয়ন ডোজ সংরক্ষণ করেছে। যুক্তরাজ্যের মেডিসিনস অ্যান্ড হেলথ কেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটরি এজেন্সির (এমএইচআরএ) অনুমোদন পেলে এ বছরের মাঝামাঝি সময় থেকেই এই টিকার প্রয়োগ শুরু করবে যুক্তরাজ্য।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে এখন পর্যন্ত অ্যাস্ট্রেজেনেকার-অক্সফোর্ড, ফাইজার-বায়োএনটেক এবং মডার্নার করোনার টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ওষুধ তৈরিকারী প্রতিষ্ঠান নোভাভ্যাক্সের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যে তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর দেখা গেছে তাদের টিকা ৮৯ দশমিক ৩ শতাংশ কার্যকর। ১৮ থেকে ৮৪ বছর বয়সী ১৫ হাজার মানুষের ওপর এই টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৭ শতাংশ মানুষের বয়স ৬৫ বছরের বেশি। অপরদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার ট্রায়ালে দেখা গেছে করোনা প্রতিরোধে নোভাভ্যাক্সের টিকা ৬০ শতাংশ কার্যকর। সেখানে এইচআইভি আক্রান্তদের উপর প্রয়োগ করে এই ফলাফল পাওয়া গেছে।

নোভাভ্যাক্সের চিফ এক্সিকিউটিভ স্ট্যান এর্ক বলেন, যুক্তরাজ্য ট্রায়ালে ফলাফল দুর্দান্ত এবং আমরা যতটা আশা করেছিলাম ঠিক ততটাই ভালো ফলাফল পেয়েছি। দক্ষিণ আফিকার ট্রায়ালের ফলাফলও জনগণের প্রত্যাশার চেয়ে বেশি।

  •  
  •  
  •  
  •