ক্রমাগত বোমাবর্ষণ ও ধ্বংসযজ্ঞের মধ্যেই ঈদ উদযাপিত হচ্ছে ফিলিস্তিনে

eid

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ আজ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। অথচ উদযাপনহীন রক্তাক্ত এক ঈদ পার করছেন ফিলিস্তিনিরা। ইসরায়েল নিয়মিত হামলা চালাচ্ছে ফিলিস্তিনের এলাকাগুলোতে।

বৃহস্পতিবার সকালে যখন ফিলিস্তিনিরা ঈদুল ফিতর উদযাপন করতে বিভোর তখনও তাদের মনে অজানা এক আতঙ্ক, আশঙ্কা করছে। কেননা ইসরায়েলি হামলা থেমে নেই। বুধবার গভীর রাতেও গাজায় ভারী বোমাবর্ষণ করে ইসরায়েলি বাহিনী।

সাফওয়াত আল-কাহলুত নামে এক ফিলিস্তিনি আল জাজিরাকে বলেন, বোমা বর্ষণের কারণে গতকাল বুধবার রাত থেকেই গাজা জেগে (ঈদের জন্য জাগতে হয়নি) আছে। কিছু সময় পর পর বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যাচ্ছে, আর ভবনগুলো কেঁপে কেঁপে উঠছে।

ফিলিস্তিনের স্থানীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আল জাজিরাকে জানিয়েছে, অব্যাহত বোমা হামলায় ফিলিস্তিনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে অন্তত ৬৭ জনে দাঁড়িয়েছে। তবে আল জাজিরার হিসেবে, অন্তত ৬৯ জন নিহত হয়েছে, যার মধ্যে অন্তত ১৭ শিশু ও ৮ নারী রয়েছে।

উল্লেখ্য ইসরায়েলের দখলদারিত্বকে কেন্দ্র করে বেশ কিছুদিন ধরেই বিক্ষোভ চলছিল জেরুজালেমে। গত রোববার (৯ মে) লাইলাতুল কদরের রাতে আল আকসায় নামাজ আদায় শেষে ফিলিস্তিনিরা বিক্ষোভ শুরু করলে ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনীর হামলায় অন্তত ৯০ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়।

সংঘর্ষের পর থেকে আল আকসা মসজিদ ও তৎসংলগ্ন এলাকা ঘিরে রাখে ইসরায়েলি পুলিশ। এর জেরে আল আকসা থেকে নিরাপত্তা বাহিনী প্রত্যাহারে ২৪ ঘণ্টা সময় দিয়ে হুঁশিয়ারি দেয় হামাস। কিন্তু ইসরায়েল ওই হুমকিকে আমলে না নিলে ১০ মে সন্ধ্যার পর গাজা থেকে ইসরায়েলের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে রকেট হামলা শুরু করে হামাস। তারপর থেকেই গাজায় বিমান হামলা শুরু করে ইসরায়েল।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: