নাইজেরিয়ার মাদ্রাসা থেকে ২০০ শিক্ষার্থীকে অপহরণ করেছে বন্দুকধারীরা

school

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ নাইজেরিয়ার নিজার প্রদেশের একটি মাদ্রাসা থেকে একদল শিক্ষার্থীকে অপহরণ করেছে বন্দুকধারীরা। স্থানীয় সময় গতকাল রোববার এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সরকার টুইটে জানিয়েছে, ঠিক কতটি শিশুকে অপহরণ করা হয়েছে, সে ব্যাপারে তারা নিশ্চিত নয়। তবে অন্য গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, এই সংখ্যা প্রায় ২০০।

মুক্তিপণ আদায়ের জন্য নাইজেরিয়ায় অপহরণের ঘটনা ক্রমাগত বেড়ে চলেছে। এর আগে নাইজেরিয়ার উত্তর–পশ্চিমাঞ্চলে একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এক মাসেরও বেশি সময় আগে ২০ জনকে অপহরণ করা হয়। ৪০ দিন পর ১৪ জনকে মুক্ত করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে দিস ডে নামে একটি খবরের ওয়েবসাইটে জানানো হয়, অস্ত্রধারীরা মোটরসাইকেলে করে পুরো শহর চষে বেড়ায় এবং এলোপাতাড়ি গুলি করতে থাকে।

মানুষ তাদের হাত থেকে বাঁচতে পালিয়ে যাওয়ার পর তারা স্কুলে ঢুকে শিক্ষার্থীদের অপহরণ করে। স্কুলটিতে ছয় বছর থেকে শুরু করে ১৮ বছর বয়সী মেয়ে ও ছেলে শিশুরা একসঙ্গে পড়ে। হামলায় দুই ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছে এবং একজন মারা গেছে।

এ বিষয়ে নাইজার পুলিশের মুখপাত্র ওয়াসিউ আবিওদুন বলেছেন, হামলাকারীরা মোটরসাইকেলে এসে পৌঁছায়। সালিহু টাঙ্কো ইসলামিক স্কুলে তারা গুলিবর্ষণ করে। সেখানকার একজন বাসিন্দা নিহত হন এবং আরও একজন আহত হন। এরপর বন্দুকধারীরা শিশুদের অপহরণ করে নিয়ে যায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3