সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছেঃ প্রতিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ করোনা মহামারির কারণে আটকে আছে সরকারি বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষা। এজন্য ক্ষতিগ্রস্ত চাকরি প্রার্থীদের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়াতে পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

মঙ্গলবার (৪ মে) প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনাকালে যেসব চাকরিপ্রার্থী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাদের আমরা ক্ষতি পুষিয়ে দিতে চেষ্টা করবো। বয়সটা যাতে ছাড় দেওয়া হয় সেই পদক্ষেপ আমরা নেব।

তিনি আরও বলেন, আমরা মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোকে বয়সে ছাড় দিয়ে সেই সময়টা পুষিয়ে দেওয়ার নির্দেশনা দেব। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, যখন যে সময় বিজ্ঞপ্তি হওয়ার কথা ছিল, আগের সময় ধরেই পরবর্তীতে একই সময়ে এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

এর আগে গত বছর করোনা মহামারিতে সাধারণ ছুটির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত চাকরি প্রার্থীদের বয়সের ক্ষেত্রে ছাড় দেয় সরকার। ওই বছর ২৫ মার্চ যাদের বয়স ৩০ বছর পূর্ণ হয়েছিল তাদের পরবর্তী ৫ মাস পর্যন্ত সরকারি চাকরিতে আবেদনের সুযোগ দেওয়া হয়।

দেশে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বগতি হওয়ায় গত ৫ এপ্রিল থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ দেয় সরকার। পরে গত ১৪ এপ্রিল থেকে আটদিনের ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ শুরু হয়। লকডাউনের মধ্যে পালনের জন্য ১৩টি নির্দেশনা দেয়া হয় সরকারের পক্ষ থেকে। 

পরে সাতদিন করে দু-দফা লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হয়। সেই মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল ৫ মে (বুধবার) মধ্যরাতে। এদিকে, সোমবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন, লকডাউনের মেয়াদ আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  

Tags: ,