ঝিনাইদহে মডার্ন ফার্মার এমডি ও বহু দাতব্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব মোঃ খায়রুল বাশারের মৃত্যু

ঝিনাইদহ সংবাদদাতাঃ

ঝিনাইদহ মডার্ন ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বহু দাতব্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব মোঃ খায়রুল বাশার আর নেই। তিনি বৃহস্পতিবার সকালে বার্ধক্য জনিত কারণে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহে—-রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮৩ বছর। তিনি স্ত্রী, ভাই, ৩ ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

তার মৃত্যুতে ঝিনাইদহে শোকের ছায়া নেমে আসে। মৃত্যুর খবর পেয়ে শহরের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বিশিষ্ট সমাজ সেবক খায়রুল বাশারের মৃতদেহ এক নজর দেখার জন্য তার মডার্নপাড়ার বাসভবনে ছুটে যান। পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, মোঃ খায়রুল বাশার ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নারিকেলবাড়িয়া গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত জমিদার পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। ৭০ দশকে তিনি সল্পপরিসরে ওষুধ তৈরীর কারখানা স্থাপন করেন। তিল তিল করে তার ছোয়ায় গড়ে ওঠে আজকের মডার্ন ফার্মাসিটিক্যালস। আইএসও সনদধারী মডার্ন ফার্মাসিটিক্যালস এখন বিদেশেও ওষুধ রপ্তানী করে। ওষুধ ব্যবসার পাশাপাশি তিনি সমাজসেবা মুলক কাজে জড়িয়ে পড়েন।

ঝিনাইদহের বহু দাতব্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি খায়রুল বাশার। তিনি ঝিনাইদহ চেম্বার, ডায়াবেটিক সমিতি, চক্ষু হাসপাতাল, হার্ট ফাউন্ডেশন, কাঞ্চননগর মসজিদ, নারিকেলবাড়িয়া কলেজের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এ সব দাতব্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠার পেছনেও তার কৃতিত্বমাখা অবদান রয়েছে। তিনি মাধানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার কেন্দ্রীয় সদস্য ছিলেন। নব্বই দশকে তিনি দৈনিক ঝিনাইদহ নামে একটি জনপ্রিয় পত্রিকার প্রকাশকও ছিলেন।

এদিকে শিল্পপতি ও সমাজসেবক খায়রুল বাশারের মৃত্যুগে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ঝিনাইদহ চেম্বার, ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব, ডায়াবেটিক সমিতি, চক্ষু হাসপাতাল, হার্ট ফাউন্ডেশন ও নারিকেলবাড়িয়া ডিগ্রী কলেজ কর্তৃপক্ষ। পৃথক শোকবার্তা তারা এমন দানশীল ও সমাজকর্মীর মৃত্যুতে ঝিনাইদহবাসি একজন অভিভাবককে হারালো বলে উল্লেখ করেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের কর্মকর্তারাও মরহুমের মৃত্যুতে সমবেদনা প্রকাশ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •